মাঘের সন্ধ্যায় উষ্ণতা ছড়ালো নৃত্যের অনুপম পরিবেশনায়

আগের সংবাদ

যে কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

পরের সংবাদ

সব খোলা রেখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্তে বিক্ষোভ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২২ , ৯:৪২ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২১, ২০২২ , ৯:৪২ অপরাহ্ণ

সবকিছু খোলা রেখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ছয়টায় রাজু ভাস্কর্য চত্বরে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশের পূর্বে একটি মিছিল টিএসসি প্রদক্ষিণ করে। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক রাফিকুজ্জামান ফরিদ, অর্থ সম্পাদক প্রগতি বর্মণ তমা ও সদস্য সাদেকুল ইসলাম সাদিক।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে সরকার আজ এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। সরকারের এই সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক। দেশের হাট-বাজার, অফিস-আদালত, গণপরিবহন সবকিছু স্বাস্থ্য বিধি মেনে খোলা রেখে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। গত কয়েকদিনে সরকারের শিক্ষামন্ত্রীসহ বেশ কয়েকজন মন্ত্রী ছাত্রছাত্রীদের টিকা দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার কথা বলে আসছিলেন। কিন্তু আজ হঠাৎ করে কেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হল তা বোধগম্য নয়।

ইতোমধ্যে করোনা মহামারির শুরুতে ১৭ মাস শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষা ব্যবস্থা বিপর্যস্ত। এ পরিস্থিতিতে আবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করলে দেশের কোটি কোটি শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন বিপন্ন হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সচল রাখতে বিশেষজ্ঞ, অভিভাবকসহ সচেতন মানুষ শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন প্রদান, শিফটিং ক্লাসসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু সরকার পূর্বের ন্যায় অন্য সকল জনসমাগম ঠিক রেখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত নিল যা শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত বিপন্ন করবে। ফলে দীর্ঘ বন্ধের ফলে বিপর্যস্ত শিক্ষা ব্যবস্থাকে স্বাভাবিক করতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার বিকল্প নেই।

সরকারের এই অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত বাতিল করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার দাবি জানান সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের নেতারা।

আর- আরএ / ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়