আইসিসির বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি একাদশে মোস্তাফিজ

আগের সংবাদ

ষষ্ট ধাপে ইউপি নির্বাচনে ৭২ ঘণ্টা বাইক চলাচল নিষেধাজ্ঞা

পরের সংবাদ

কেরানীগঞ্জে স্কুল ছাত্র সোহাগ হত্যায় আসামির মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২২ , ৭:০১ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৯, ২০২২ , ৭:০১ অপরাহ্ণ

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে মীরেরবাগ বালুচর ওরিয়েন্টাল স্কুলের ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী সোহাগকে অপহরণের পর খুনের মামলায় একমাত্র আসামি ইয়াসিন মাহমুদ শাহীনের (২৮) মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডসহ ২০১ ধারায় আরো সাত বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইসমত জাহানের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। এসময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে সোহাগের বাবা ইদ্রীস খান বলেন, ‘রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। আশা করবো, উচ্চ আদালতে এ রায় বহাল থাকবে। আসামির দ্রুত ফাঁসি কার্যকর হবে।’ অন্যদিকে আসামির পরিবার এ রায়ে সন্তুষ্ট নয় বলে উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানান।

২০১৮ সালের ৩০ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সোহাগ স্কুল থেকে ফেরার পর তাকে কৌশলে অপহরণ করে আসামি শাহিন। এরপর তার পরিবারের কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এক ঘণ্টার মধ্যে টাকা না দিলে সোহাগকে মেরে ফেলার হুমকি দেন শাহিন। সোহাগের পরিবার প্রথমে র‌্যাব ও পরে থানার পুলিশকে জানালে এবং ২/৩ বার টাকা চেয়ে ফোন দিয়েও না পেয়ে ভিকটিমকে হত্যা করে আসামি।

সেদিন পুলিশ মোবাইল টেকনোলজির সহায়তায় শাহিনকে মীরেরবাগ বালুর মাঠ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তার স্বীকারোক্তিতে বাসা থেকে হাত, নাক, মুখ, স্কচটেপ দিয়ে বাঁধা সোহাগকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ওইদিন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন সোহাগের বাবা। মামলাটিতে ২৯ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়।

রি-আরএ/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়