নিউজ ফ্ল্যাশ

আগের সংবাদ

খেলাধুলা যুব-সমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখে: মেয়র আতিক

পরের সংবাদ

হ্যাটট্রিকে ৩০০ গোলের রেকর্ড লেভানদস্কির

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২২ , ৮:১৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২২ , ৮:১৮ অপরাহ্ণ

সম্প্রতি ফুটবল মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন গোল মেশিনখ্যাত রবার্ট লেভানদস্কি। তিনি মাঠে থাকলে প্রতিপক্ষ দলগুলোর হৃৎস্পন্দন বেড়ে যায়। দুর্দান্ত এই পোলিশ তারকা গোল না করা পর্যন্ত স্বস্তি পান না। লেভানদস্কি বুন্দেসলিগায় গত আসরে রেকর্ড গড়ার পর এবারো একই ছন্দে গোল করে যাচ্ছেন। তারই ধারাবাহিকতায় রবিবার কোলনের জালে হ্যাটট্রিক করার পথে ৩০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন লেভানদস্কি। তার গোলের সুবাদে এদিন কোলনের মাঠে ৪-০ গোলে জিতেছে বায়ার্ন মিউনিখ।

এছাড়া টানা দুই ম্যাচে পয়েন্ট খোয়ানোর পর রবিবার লিগ ওয়ানে জয়ে ফিরেছে পিএসজি। দুই অর্ধের দুই গোলে ব্রেস্তকে সহজেই হেসেখেলে হারিয়েছে মারিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা। এদিন প্যারিসে লিগ ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছে পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপ্পের দলকে এগিয়ে নেয়ার পর ব্যবধান বাড়ান টিলো কেরার। লিগে গত দুই রাউন্ডে যথাক্রমে লরিয়ঁ ও লিওঁর বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছিল প্যারিসের দলটি।

অন্যদিকে আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সে মজার এক কাণ্ড ঘটিয়ে তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন বেঞ্জামিন। ঘানা ও গ্যাবনের মধ্যকার ম্যাচের শেষের দিকে হঠাৎ সংঘর্ষ ও হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দুদলের ফুটবলাররা। একপর্যায়ে প্রতিপক্ষের অ্যারন বুপেঞ্জাকে ঘুসি মেরে বসেন বেঞ্জামিন। তাই এমন অপরাধে ঘানার এই ফরোয়ার্ডকে তিন ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ‘সি’ গ্রুপে গত পরশু ঘানার বিপক্ষে শুরুর দিকে পিছিয়ে পড়ার পর নির্ধারিত সময় শেষের দুই মিনিট আগে সমতায় ফেরে গ্যাবন। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচটির শেষে দুদলের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা হাতাহাতিতে লিপ্ত হন। ওই সময় গ্যাবনের বুপেঞ্জাকে আঘাতটি করেন বেঞ্জামিন। ভিএআরের মাধ্যমে রেফারিকে ঘটনাটি অবগত করা হলে তাকে লাল কার্ড দেয়া হয়। যদিও বেঞ্জামিন কার্ড দেখার জন্য ড্রেসিংরুম থেকে বেরিয়ে আসতে অস্বীকার করেন। তাছাড়া ম্যাচে বদলি হিসেবে মাত্র তিন মিনিটের জন্য মাঠে নেমেছিলেন বেঞ্জামিন। লাল কার্ডের জন্য এমনিতেই দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেতেন ২৪ বছর বয়সি এই ফুটবলার। পাশাপাশি সহিংস আচরণের জন্য গত শনিবার তাকে অতিরিক্ত এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কথা জানায় আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশন।

কোলনের জাল লক্ষ্য করে শট নিচ্ছেন লেভানদস্কি

এদিকে লেভানদস্কি বুন্দেসলিগায় ৩০০ গোলের নতুন কীর্তি গড়ার ম্যাচে নবম মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পান লেভান। বাঁ-দিক থেকে টমাস মুলারের রক্ষণচেরা পাস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তিনি। এই নিয়ে বুন্দেসলিগায় টানা ৬৬ ম্যাচে গোল পেল বায়ার্ন। কোরোঁতাঁ তোলিসো ২৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার কিছুক্ষণ পর একবার জালে বল পাঠিয়েছিলেন স্বাগতিকদের স্ট্রাইকার মার্ক। তবে অফসাইডের পতাকা ওঠায় ম্যাচে আর ফেরা হয়নি তাদের। এরপর ৬২ মিনিটে লেরয় সানের বুদ্ধিদীপ্ত ছোট করে বাড়ানো থ্রু বল ছয় গজ বক্সের বাইরে পেয়ে কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ২০১০-২০১৪ পর্যন্ত বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে খেলা লেভানদস্কি। ১২ মিনিট পর তার হ্যাটট্রিক পূরণের গোলেও জড়িয়ে যায় সানের নাম। এবার বেশ দাপটে ডি-বক্সের ঠিক বাইরে প্রতিপক্ষের কয়েকজনের বাধা এড়িয়ে ছয় গজ বক্সের মুখে বল বাড়ান সানে। আর প্রথম ছোঁয়ায় বাঁ-পায়ের শটে ৩০০ গোলের ক্লাবে নাম তুলেন ৩৩ বছর বয়সি এই স্ট্রাইকার।

জার্মানির শীর্ষ লিগের গত আসরে রেকর্ড ৪১ গোল করা লেভানদস্কি চলতি আসরে এ পর্যন্ত করেছেন ২৩ গোল, ১৯ ম্যাচে। প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে তার চেয়ে বেশি গোল কেবল গার্ড মুলারের (৩৬৫)। লেভানদস্কি যেভাবে ছুটে চলেছেন, এই রেকর্ডটিও হয়তো একদিন নিজের করে নেবেন তিনি। গত পরশু রাতে ফ্রেইবুর্কের মাঠে ৫-১ গোলের জয়ে ব্যবধান ৩ পয়েন্টে নামিয়ে এনেছিল দ্বিতীয় স্থানে থাকা বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। ব্যবধানটাকে আবারো ৬ পয়েন্টে বাড়িয়ে নিল বায়ার্ন। ১৯ ম্যাচে ১৫ জয় ও এক ড্রয়ে টানা ৯ বারের চ্যাম্পিয়নদের পয়েন্ট ৪৬। ডর্টমুন্ডের পয়েন্ট ৪০।

এদিকে করোনা ভাইরাস থেকে লিওনেল মেসি সেরে উঠলেও তাকে আরো সময় দিতে এই ম্যাচেও স্কোয়াডে রাখেননি পিএসজি কোচ পচেত্তিনো। ফলে শুরুর কয়েক মিনিটে দারুণ কিছু আক্রমণে পিএসজিকে কাঁপিয়ে দেয় ব্রেস্ত। তাদের ফরোয়ার্ড কার্দোনার দুটি প্রচেষ্টা রুখে দেন ইতালিয়ান গোলরক্ষক জানলুইজি দোন্নারুম্মা। ম্যাচের সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের গুছিয়ে নিয়ে ৩২ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় পিএসজি। জর্জিনিয়ো ভেইনালডামের পাস ডি-বক্সে পেয়ে এমবাপ্পের ডান পায়ের জোরালো শট প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে চমৎকারভাবে জালে জড়ায়। সেই সময় তাকিয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করার ছিল না লরিয়ঁ ও লিওঁর গোলরক্ষকের। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে দ্বিগুণ হতে পারত ব্যবধান। কিন্তু আনহেল দি মারিয়ার পাসে মার্কো ভেরাত্তির ডান পায়ের শট পোস্টে লাগে। তবে ৪ মিনিট পরই অবশ্য দুই ডিফেন্ডারের নৈপুণ্যে ব্যবধান বাড়ায় স্বাগতিকরা। বাঁ-দিকের বাইলাইনের কাছ থেকে নুনো মেন্দেসের কাটব্যাক ছয় গজ বক্সের মুখে পেয়ে প্রথম স্পর্শে ঠিকানা খুঁজে নেন কেরার। গত সপ্তাহে লিওঁর বিপক্ষে এই জার্মানের গোলেই হার এড়িয়েছিল পিএসজি। এরপর ৭৪ মিনিটে দি মারিয়াকে তুলে নিয়ে সার্জিও রামোসকে নামান পিএসজি কোচ। দুই মিনিট পর ব্যবধান আরো বাড়তে পারত। মার্কিনিয়োসের হেড গোললাইন থেকে হেডেই ফেরান ব্রেস্তের এক ডিফেন্ডার। ফিরতি বলে মাউরো ইকার্দির প্রচেষ্টা ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন গোলরক্ষক। শেষ দিকে ভালো একটি সুযোগ পেয়েও গোলরক্ষক বরাবর শট করেন এমবাপ্পে। এছাড়া ২১ ম্যাচে ১৫ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে পিএসজি। সমান ম্যাচে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নিস। দুই ম্যাচ কম খেলে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে মার্সেই।

রি-এসএস/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়