বোয়ালখালীতে ৩৫টি সরস্বতী প্রতিমা ভাঙচুর

আগের সংবাদ

সুষ্ঠু ভোট হলে লক্ষাধিক ভোটে জয়লাভ করবো: তৈমূর

পরের সংবাদ

যুক্তরাজ্যে ভ্রমণের আগে করোনা পরীক্ষা জরুরি নয়, দুই টিকাই যথেষ্ট

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২২ , ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২২ , ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ

সামনের দিনগুলোতে করোনাকে সঙ্গী করেই চলতে হবে। এ সত্যকে মেনে নিলো যুক্তরাজ্য। দেশটিতে পর্যটক বা বিদেশিদের প্রবেশের ক্ষেত্রে যে বিধি কার্যকর করা হয়েছিলো সেটি বাতিল করে দিলো বরিস জনসনের প্রশাসন।

দুটি টিকা নেয়া পর্যটক বা যাত্রীদের ফ্লাইটে ভ্রমণের আগে করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক নয় বলে নতুন বিধি জারি করে যুক্তরাজ্য। মহামারি চলাকালীন বিশ্বে প্রথম দেশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

এর আগে যুক্তরাজ্যে ভ্রমণের ৪৮ ঘণ্টা আগে করোনা আরটিপিসিআর পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ দেখাতে হতো দুটি টিকা নেয়া প্রাপ্তবয়স্ক যাত্রীদের। একই সঙ্গে দেশটিতে পৌঁছানোর দুদিনের মধ্যে পর্যটক বা বিদেশি ব্যক্তির নিজের ব্যয়ে করোনা পরীক্ষা করাতে হতো এবং রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকতে হতো। কিন্তু ৭ জানুয়ারি থেকে ব্রিটিশ সরকার সেই বিধি প্রত্যাহার করে নেয়। আর এর ফলে দেশটির সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছে পর্যটন ও বিমান সংস্থাগুলো।

গত ৭ জানুয়ারি নতুন এ বিধি কার্যকরের ঘোষণা দেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি জানান, পর্যটন ও বিমান সংস্থাগুলো থেকে আবেদন করা হয়েছে, বিদেশিদের যুক্তরাজ্যে প্রবেশের জন্য ও প্রবেশের পর কঠোর বিধিনিষেধের জের ধরে প্রভাব পড়ছে পর্যটন এবং বিমান পরিবহন শিল্পের ওপর। এ বিধি জারির কারণে অনেকে যুক্তরাজ্যে আটকে পড়ার ভয় পাচ্ছেন। সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

বরিস জনসন বলেন, যুক্তরাজ্যে যখন প্রথম ওমিক্রন শনাক্ত হয়, তখন বিদেশিদের ক্ষেত্রে কঠোর বিধিনিষেধ চালু করেছিলাম। কিন্তু এখন সংক্রমণের চালিকাশক্তির ভূমিকায় রয়েছে ওমিক্রন। এর ফলে কাজে আসছে না কঠোর বিধিনিষেধ। বরং এর প্রভাব পড়ছে দেশের পর্যটন, বিমান পরিবহনসহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে। তাই এখন থেকে বিদেশিদের জন্য সেই কঠোর বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হচ্ছে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়