গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক রেজিস্ট্রারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে পরোয়ানা

আগের সংবাদ

ইরাবের সভাপতি অভিজিৎ ভট্টাচার্য, সম্পাদক আকতারুজ্জামান

পরের সংবাদ

দক্ষিণাঞ্চলকে হারিয়ে স্বাধীনতা কাপের শিরোপা জিতল মধ্যাঞ্চল

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৫, ২০২২ , ৬:১০ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৫, ২০২২ , ৬:১০ অপরাহ্ণ

বিসিবি দক্ষিণাঞ্চলকে ৬ উইকেটে হারিয়ে স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে শিরোপা জিতেছে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল। সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ১৬৩ রানের জবাবে ৪ উইকেট হারিয়ে ৪২.৩ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় মধ্যাঞ্চল।

খেলতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে মধ্যাঞ্চল করে ৬৫ রান। এ সময় ২৯ বলে ২৭ রান করে নাসুম আহমেদের শিকার হন সৌম্য। ওয়ানডাউনে খেলতে নামা আবদুল মজিদ আউট হন মাত্র এক রান করে। মোহাম্মদ মিঠুন সাজঘরে ফিরে যান ব্যক্তিগত ৪ রানে। ওপেনার মিজানুরও ৩৩ রানে নাসুমের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পা দেন।

পরে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও আল আমিনের ব্যাটে ভর করে সহজেই জয়ের নাগাল পায় মধ্যাঞ্চল। আল আমিন ৭০ বলে ৭ চারে করেন ৫৭ রান। সৈকতের ব্যাট থেকে ৮৫ বলে আসে ৩৩ রান। দক্ষিণাঞ্চলের হয়ে একাই তিন উইকেট নেন নাসুম। এক উইকেট পান মেহেদী হাসান রানা।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মধ্যাঞ্চলের স্পিনারদের দাপটে ১৬৩ রানে গুটিয়ে যায় দক্ষিণাঞ্চলের ইনিংস। ৭ বল হাতে রেখেই অলআউট হয় তারা। অবশ্য দলকে ভালো সূচনা এনে দেন পিনাক ঘোষ ও এনামুল হক বিজয়। তাদের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৫১ রান।

বিজয়কে এলবিডব্লিউ করে এই জুটি ভাঙেন নাজমুল ইসলাম অপু। ৩৪ বলে ২০ রান করেন বিজয়। পিনাককে শিকার করেন সৌম্য। ৪৭ বলে ৩৫ রান করেন পিনাক। রানের খাতা খোলার আগেই তৌহিদ হৃদয়কে থামান অপু। ১১১ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ভীষণ চাপে পড়ে দক্ষিণাঞ্চল। ফরহাদ রেজাকে নিয়ে এই ধাক্কা কিছুটা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন নাহিদুল ইসলাম। তবে নাহিদুলও বেশি দূর এগোতে পারেননি।

২০ বলে ৭ রান করে রেজা স্টাম্পিং হন মুরাদের বলে। পরের ওভারেই বিদায় নেন নাহিদুল। মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীর বলে তার হাতেই ক্যাচ দেন নাহিদুল। তার ব্যাট থেকে আসে ৪৮ বলে ৩১ রান। মধ্যাঞ্চলের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন মোসাদ্দেক, সৌম্য, নাজমুল, মুরাদ হাসান ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়