করোনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৪৪৭

আগের সংবাদ

দক্ষিণাঞ্চলকে হারিয়ে স্বাধীনতা কাপের শিরোপা জিতল মধ্যাঞ্চল

পরের সংবাদ

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক রেজিস্ট্রারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে পরোয়ানা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৫, ২০২২ , ৬:০৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৫, ২০২২ , ৬:০৭ অপরাহ্ণ

ভুয়া বিল-ভাউচার দেখিয়ে প্রতারণা করে বিপুল অর্থ আত্মসাতের অভিযোগের মামলায় গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক রেজিস্ট্রার মো. দেলোয়ার হোসেনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। বাকি দুই আসামি হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুত্তর্জা আলী (বাবু) ও আশুলিয়া সাব রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক মো. সারোয়ার হোসেন বাবুল।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনজীবী ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারহানা ইয়াসমিনের আদালত পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) প্রতিবেদন আমলে নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারির এ পরোয়ানা জারি করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সংলগ্ন জমি ক্রয়ের কাজে সাবেক রেজিস্ট্রার মো. দেলোয়ার হোসেন ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুত্তর্জা আলী পরষ্পর যোগসাজশে এবং দলিল লেখক মো. সারোয়ার হোসেন বাবুলের সহযোগিতায় বিভিন্ন খাতে প্রয়োজনের অতিরিক্ত দলিলের মূল্য ও রেজিস্ট্রি ফি প্রদর্শন করে ভুয়া বিল-ভাউচার দেখিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করে।

গত বছরের অক্টোবরে তাদের অভ্যন্তরীন তদন্তে বিপুল পরিমান অর্থ আত্মসাতের সত্যতা পেয়ে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা করেন গণ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরপর আদালত মামলাটি তদন্ত করে পিবিআইকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। পিবিআই অভিযোগের বিশদ তদন্ত করে আসামিদের বিরুদ্ধে ৭৩ লাখ ৯৪ হাজার ১৯০ টাকা প্রতারণার করে আত্মসাত করার প্রমাণ পেয়ে প্রতিবেদন দাখিল করে। এতে তিন আসামিকে দণ্ডবিধির ৪০৩/৪০৮/৪২০/৩৪ ধারায় অভিযুক্ত করা হয়।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়