রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ২০ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

কেশবপুরে মুক্তিযোদ্ধা ছমির উদ্দীনকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

পরের সংবাদ

স্বপ্নদলের দুইদিন ব্যাপী নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৩, ২০২২ , ৮:২২ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০২২ , ৮:৪৩ অপরাহ্ণ

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন এর ১৪তম প্রয়াণবার্ষিকী স্মরণে নাট্যসংগঠন স্বপ্নদল শুক্র ও শনিবার অনলাইন ও মঞ্চে আয়োজন করেছে দুই দিনব্যাপী ‘নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব ২০২২’। নাট্যাচার্যের জন্ম ও প্রয়াণদিবস স্মরণে স্বপ্নদলের নিয়মিত উৎসব-আয়োজনের ২৫তম এ আসরের স্লোগান- ‘ঐতিহ্য-রবীন্দ্রনাথ-সেলিম আল দীন, বাঙালির নাট্যযাত্রায় প্রেরণা রঙিন’।

উৎসবের প্রথম দিন ১৪ জানুয়ারি (শুক্রবার) সকাল দশটায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বপ্নদলের স্মরণ-শোভাযাত্রাসহ নাট্যাচার্যের সমাধিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ। রাত দশটায় ফেসবুক লাইভে নাট্যচার্যের জীবন-কর্ম-দর্শন নিয়ে আলোচনা, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনসহ ‘রবীন্দ্রনাথ-সেলিম আল দীনের নাট্যদর্শন ও বাঙলা নাট্যরীতি’ শীর্ষক বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান হবে। মূল বক্তব্য উপস্থাপন করবেন স্বপ্নদলের প্রধান সম্পাদক নাট্যজন জাহিদ রিপন। মঞ্চসারথি আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে এতে অতিথি হিসেবে আলোচনা করবেন নাট্যচার্যের আজন্ম শিল্পসঙ্গী নাট্যজন নাসির উদ্দীন ইউসুফ, জাহাঙ্গীনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক নাট্যজন ড. রশীদ হারুন, গ্রাম থিয়েটারের ঢাকা বিভাগীয় সমন্বয়কারী নাট্যজন কামরুল হাসান খান প্রমুখ। সঞ্চালনা করবেন স্বপ্নদলের জ্যেষ্ঠ সদস্য নাট্যজন জুয়েনা শবনম ও নাট্যজন শিশির সিকদার। লাইভ ওয়েবিনারটি জাহিদ রিপনের ফেসবুক আইডি থেকে সম্প্রচার হবে।

দ্বিতীয় দিন ১৫ই জানুয়ারি শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির স্টুডিও থিয়েটারে স্বপ্নদলের প্রযোজনা জাহিদ রিপনের নির্দেশনায় আধুনিক বাঙলা নাট্যরীতির প্রামাণ্য হিসেবে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কালজয়ী সৃষ্টি কাব্যনাট্য ‘চিত্রাঙ্গদা’-র সরাসরি মঞ্চ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, রবীন্দ্রনাথ মহাভারতের চিত্রাঙ্গদা-উপাখ্যান অবলম্বনে ১৮৯২-এ কাব্যনাট্যরপে এবং ১৯৩৬-এ নৃত্যনাট্যরূপে ‘চিত্রাঙ্গদা’ রচনা করেন। স্বপ্নদলের ‘চিত্রাঙ্গদা’ প্রযোজনাটি নির্মিত হয়েছে কাব্যনাট্য পাণ্ডুলিপি অবলম্বনে। এর নাট্যকাহিনিতে উপস্থাপিত হয়- মহাবীর অর্জুন সত্যপালনের জন্য একযুগ ব্রহ্মচর্যব্রত গ্রহণ করে মণিপুর বনে এসেছেন। মণিপুর-রাজকন্যা চিত্রাঙ্গদা, অর্জুনের প্রেমে উদ্বেলিত হলেও অর্জুন রূপহীন চিত্রাঙ্গদাকে প্রত্যাখ্যান করেন। অপমানিত চিত্রাঙ্গদা প্রেমের দেবতা মদন এবং যৌবনের দেবতা বসন্তের সহায়তায় এক বছরের জন্য অপরূপ সুন্দরীতে রূপান্তরিত হন। এবারে অর্জুন যথারীতি চিত্রাঙ্গদার প্রেমে পড়েন। কিন্তু অর্জুনকে লাভ করেও চিত্রাঙ্গদার অন্তর দ্বন্দ্বে ক্ষত-বিক্ষত হতে থাকে অর্জুন প্রকৃতপক্ষে কাকে ভালোবাসেন, চিত্রাঙ্গদার বাহ্যিক রূপ নাকি তার প্রকৃত অস্তিত্বকে? এভাবে ‘চিত্রাঙ্গদা’ পৌরাণিক কাহিনির আড়ালে যেন এ কালেরই নর-নারীর মনোদৈহিক সম্পর্কের টানাপোড়েন এবং পাশাপাশি পারস্পরিক সম্মানাবস্থানের প্রেরণারূপে উপস্থাপিত হয়।

‘চিত্রাঙ্গদা’ প্রযোজনার গ্রন্থিকরা হলেন সোনালী, জুয়েনা, শিশির, শ্যামল, অর্ক, হ্যাপী, সুমাইয়া, সামাদ, ঊষা, জেবু, হাসান, আলী, বিপুল, মাধুরী, নিসর্গ, আঁচল, মাসুদ, আসিফ, মামুন, বিমল, রবিন, অনিন্দ্য প্রমুখ।

টিআই / এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়