বিশাল লক্ষ্যমাত্রার বাজেট প্রস্তুতি

আগের সংবাদ

করোনা ঠেকাতে আক্রান্তদের ধাতব বাক্সে বন্দি করছে চীন, বিতর্ক

পরের সংবাদ

সাক্ষাৎকার: ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী

চলমান উন্নয়ন সমাপ্ত ও শিশুবান্ধব নগরী গড়ব

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৩, ২০২২ , ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০২২ , ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, নগরীর চলমান উন্নয়নমূলক কাজ সমাপ্ত করাই হবে মূল লক্ষ্য। মেগা প্রকল্পগুলোর কাজ দ্রুত শেষ করা হবে। এছাড়া জনগণের চাহিদা অনুযায়ী নতুন নতুন প্রকল্প নেয়া হবে। খেলার মাঠ-পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে, পুকুর ও খাল খনন করা হচ্ছে। বাধাই করা হচ্ছে পুকুর ঘাট। প্রধানমন্ত্রী শিশুবান্ধব নগরী গড়তে চান। সেই লক্ষ্যে জমি অধিগ্রহণ করে হলেও নতুন করে শিশুপার্ক নির্মাণ করা হবে। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সড়কে এলইডি বাতি লাগানো হয়েছে। এখন লাগানো হবে অলিগলিতে। গতকাল বুধবার দুপুরে নগরীর দেওভোগ বেপারিপাড়া চুনকা কুটিরে নিজ বাসভবনে বসে ভোরের কাগজকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে নাসিকের দুবারের মেয়র আইভী তার আগামীর পরিকল্পনা নিয়ে এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ নিয়ে নিজের ভাবনা প্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র আইভী বলেন, ১০তলা বিশিষ্ট নগর ভবন নির্মাণকাজ চলছে। ১৬ নং ওয়ার্ডে শেখ রাসেল পার্ক করা হয়েছে। বাবুরাইল খাল (২.৮ কিমি) খননের মাধ্যমে শীতলক্ষ্যা থেকে ধলেশ্বরী নদী পর্যন্ত প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও শোভাবর্ধন কাজ চলছে। সিদ্ধিরগঞ্জ খাল (৫.৫ কিমি) পুনঃখনন ও সৌন্দর্যবর্ধন করা হচ্ছে। কাক্সিক্ষত কদমরসুল ব্রিজ ও বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত পাইকপাড়ায় ৩ তলা বিশিষ্ট মিউচুয়াল ক্লাব পুনঃনির্মাণকাজ চলছে। আলী আহম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তন নির্মাণ (লেভেল-১ থেকে লেভেল-৬ পর্যন্ত) চলমান রয়েছে। সিটি করপোরেশনের সিদ্ধিরগঞ্জ অঞ্চলে কঠিন বর্জ্য সংগ্রহ এবং অপসারণ ব্যবস্থাপনা ও কদমরসুল অঞ্চলে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য ভূমি অধিগ্রহণ ও উন্নয়নমূলক কাজ, সিটি করপোরেশনের আওতায় নারায়ণগঞ্জ, কদমরসুল ও সিদ্ধিরগঞ্জ অঞ্চলে এলইডি স্ট্রিট লাইট স্থাপন, সিটি করপোরেশনে পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাস নির্মাণ, অপরাজিতা নগর বিদ্যালয়, কলরব স্কুল, কেন্দ্রীয় কবরস্থান সিটি জামে মসজিদ, পাক-পাঞ্জাতন সিটি জামে মসজিদ নির্মাণ প্রকল্প উল্লেখযোগ্য। এগুলোর মধ্যে অনেক কিছুর কাজ সম্পন্ন হয়েছে, আবার অনেকগুলো প্রকল্প চলমান।

এসব প্রকল্পের কাজ শেষ হলে নগরীর চেহারা বদলে যাবে দাবি করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছেন। ওই টাকায় সুইপার কলোনি নির্মাণ করা হবে। তিনি বলেন, জনগণের দীর্ঘদিনের চাহিদা শীতলক্ষ্যার কদমরসুল সেতু। ২০১৮ সালে একনেকে এই প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে। কোভিড পরিস্থিতির কারণে এর কাজ শুরু হয়নি। আগামী তিন মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন বলে জানান তিনি।

নির্বাচনী প্রচারণায় দিনরাত ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন আইভী। জনগণের কাছ থেকে কেমন সাড়া পাচ্ছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দলমত নির্বিশেষে সবার কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। বিভিন্ন বয়সি মানুষ আমাকে কাছে পেয়ে আলিঙ্গন করছেন। বাচ্চারা কাছে পেয়ে দিচ্ছে চকলেট। পাড়া মহল্লায় নারী-পুরুষরা ফুল দিয়ে বরণ করে নিচ্ছেন। মুসলমানরা আমাকে দেখেই বলছেন আলহামদুলিল্লাহ, হিন্দু নারীরা আনন্দে উলুধ্বনি দিচ্ছেন।

জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে জনগণ আমাকে পুনরায় রায় দিবেন। মানুষের চেহারা-চোখ ও মুখের ভাষা বলছে, তারা আবারো নৌকায় ভোট দিবেন।

রি-কেজে/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়