বেড়েছে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা

আগের সংবাদ

বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ মাদ্রাসা ছাত্র নিহত

পরের সংবাদ

শামীম ওসমান ‘গডফাদার’ ৩০ বছর ধরেই মানুষ জানে: আইভী

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৯, ২০২২ , ৬:৫৬ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৯, ২০২২ , ৬:৫৬ অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, আমার নারায়ণগঞ্জের জনগণ কখনো কোনো সন্ত্রাসী, গডফাদার, চাঁদাবাজ, খুনীকে গ্রহণ করেনি, করবেও না। নারায়ণগঞ্জে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সেটা বারবার প্রমাণিত হয়েছে।

রবিবার (৯ জানুয়ারি) সকালে নারায়ণগঞ্জ বন্দরে ২২ নম্বর ওয়ার্ডের অধীন বন্দর খেয়াঘাটে প্রচারকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি ওই ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন ও ভোট চান।

দলীয় নেতা শামীম ওসমানকে গডফাদার বলা প্রসঙ্গে আইভী বলেন, শামীম ওসমানকে গডফাদার উপাধি আমি দিইনি। এটা তার গত ৩০ বছরের উপাধি, শুধু নারায়ণগঞ্জ নয়, সারা বাংলাদেশের মানুষ তা জানে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ অনেক বড় একটি দল। এখানে সবার স্থান আছে। জনপ্রিয় মানুষের স্থান আছে, তেমনি বির্তকিত মানুষেরও স্থান আছে। সব দলের মধ্যেই সবাই থাকে। আওয়ামী লীগ একটি বিশাল জনসমুদ্র, এখানে যে টিকে থাকার সে টিকবে, যে চলে যাওয়ার সে চলে যাবে।

শেষ পর্যন্ত দলের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সমর্থন পাবেন কি না জানতে চাইলে আইভী বলেন, উনি (শামীম ওসমান) দিলে দেবে, না দিলে না দেবে। আমাকে উনি অপছন্দ করতেই পারেন, এটা কোনো ব্যাপার না।

তিনি বলেন, আমি আমার বড় ভাইকে (শামীম ওসমান) সম্মান দেখিয়ে বহুবারই চেষ্টা করেছি। উনি যদি ওনার দায়িত্ব পালন না করেন তাহলে কিছু করার নেই। জনতা যে রায় দেবে, সেটাই রায়। নির্বাচনে ষড়যন্ত্র হবে কি না, জানতে চাইলে আইভী বলেন, নির্বাচন এলেই ষড়যন্ত্র হয়, ষড়যন্ত্র হবেই, কিন্তু জনগণ তা ধ্বংস করে দেবে। প্রধানমন্ত্রী জানেন, নারায়ণগঞ্জের জনগণ তার পাশে আছেন। সে কী করল, না করল, তাতে কিছু যায় আসে না।

আইভী বলেন, নারায়ণগঞ্জের ভোটাররা তার কথা বলেন, ধর্মপ্রাণ মুসলমানরাও তার পক্ষে কথা বলেন। তবুও তার বিরুদ্ধে গত দিনে প্রচুর অপপ্রচার চালানো হয়েছে, বিভ্রান্তি ছড়ানো হয়েছে। ধর্মীয় ব্যাপারে উসকানি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোনোটাতেই কাজ হবে না। আগেও হয়নি, ভবিষ্যতেও হবে না।

গণসংযোগকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইভী আরও বলেন, জনপ্রতিনিধি জনগণের। গত তিনবার পাস করার পর আমি বলেছি, আমি সবার ভোটে পাস করেছি। কিন্তু আমার পরিচয় আমি বংশগতভাবে আওয়ামী লীগ করি, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনুসারী। কিন্তু আমি সবার জন্য কাজ করব। আমি যখন রাস্তা করি তখন আওয়ামী লীগ, বিএনপি দেখি না। সুতরাং আমি দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে কাজ করব। এখনো করছি, ভবিষ্যতেও করব। কিন্তু আমার পরিচিতি আমার জয় বাংলা শ্লোগান।

গণসংযোগকালে আইভীর সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল কাদির, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

টিআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়