রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপ: ইসি গঠনে আইন চান কাদের সিদ্দিকী

আগের সংবাদ

বছরে ১৯৫ কোটি আয়: মদ উৎপাদন দ্বিগুণ করছে কেরু

পরের সংবাদ

কর্মচারী নিয়োগে মাউশির ‘অনিয়ম’ তদন্তে দুদকের অভিযান

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৯, ২০২২ , ১০:২৩ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৯, ২০২২ , ১০:২৩ অপরাহ্ণ

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) কর্তৃক ৪ হাজার কর্মচারী নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রবিবার (৯ জানুয়ারি) অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী পরিচালক জেসমিন আক্তার এবং রনজিৎ কুমার কর্মকার এর সমন্বয়ে গঠিত একটি দল।

জানা যায়, নিয়োগ বিধি ১৯৯১ অনুযায়ী তাদের নিয়োগের অনুমোদন নিয়ে প্রথমে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগের জন্য পদক্ষেপ নিলেও পরবর্তীতে ৭০ নম্বরের এমসিকিউ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়া হয়। ‘প্রদর্শক’ শ্রেণির ক্যাটাগরীর দশম গ্রেডের পদগুলোকে তৃতীয় শ্রেণি দেখিয়ে নিজেরা (মাউশি) নিয়োগ দেয় কিন্তু পদোন্নতির বেলায় পিএসসির মাধ্যমে ২য় শ্রেণি বা দশম গ্রেড দেখিয়ে ক্যাডার সার্ভিসের সঙ্গে আত্মীকরণ করা হয়।

দুদক জানায়- এ বিষয়ে জানতে চাইলে অধ্যাপক শাহেদুল খবির চৌধুরী বলেন, আমাদের কাজ নিয়োগ দেই আর পিএসসি’র দায়িত্ব প্রমোশন দেয়া। সেখানে আমাদের কিছু করার নেই।

দুদক আরও জানায়, এ সংক্রান্ত নথি পর্যালোচনায় দেখা যায় নথির নোটশীটে দশম গ্রেডের পদগুলোকে দ্বিতীয় শ্রেণী উল্লেখ করা হলেও মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ অনুমোদনের ক্ষেত্রে তা তৃতীয় শ্রেণি দেখিয়ে অনুমোদন নেয়া হয় এবং নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রদান করা হয়। এত বিষয়ে নিয়োগ বিধি এবং কমিটির কার্যবিবরণীসহ আরো অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র সরবরাহের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর অনুরোধ করা হয়। পরবর্তীতে সরবরাহকৃত কাগজপত্র যাচাইপূর্বক বিস্তারিত অনুসন্ধানের সুপারিশসহ কমিশন বরাবর প্রতিবেদন দাখিল করবে এনফোর্সমেন্ট টিম।।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়