রাঙ্গাবালী প্রেসক্লাবের সভাপতি জোবায়ের, সম্পাদক রুবেল

আগের সংবাদ

অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রীকে ফুল দেওয়া নিয়ে ছাত্রলীগের হাতাহাতি

পরের সংবাদ

নিজেকে প্রস্তুত করছেন সাকিব

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৮, ২০২২ , ১১:৪০ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৮, ২০২২ , ১১:৪২ অপরাহ্ণ

করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে ঘরোয়া ক্রিকেটে ওয়ানডে ফরমেটের কোনো খেলা হয়নি না। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) গত আসরও হয়েছে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। এ কারণে এবার বিসিএল ওয়ানডে ফরমেটে মাঠে গড়াচ্ছে। রবিবার প্রথম ম্যাচে সাউথ জোনের বিপক্ষে মাঠে নামবে বিসিবি নর্থ জোন। আর দ্বিতীয় ম্যাচে ওয়ালটনের মুখোমুখি হবে ইসলামী ব্যাংক। এরপর ১১, ১৩ জানুয়ারি সিলেটের দুই মাঠে অনুষ্ঠিত হবে সব ম্যাচ। ১৫ জানুয়ারি হবে ফাইনাল। বিসিএলের এই টুর্নামেন্টে খেলবেন জাতীয় দলের চার তারকা ক্রিকেটার। চার দলের এই টুর্নামেন্টে শীর্ষ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান খেলবেন ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের হয়ে।

শুধু সাকিবই নন, ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলে তামিম ইকবাল, বিসিবি উত্তরাঞ্চলে মাহমুদউল্লাহ ও দক্ষিণাঞ্চলের জার্সি গায়ে মাঠ মাতাবেন মোস্তাফিজ। এছাড়া পাকিস্তান সিরিজ শেষে বেশ কিছুদিন ক্রিকেটের বাইরে থাকলেও নিজেকে প্রস্তুত করার মন্ত্রটা ভালোই জানেন সাকিব। বিসিএলের পর বিপিএলে অংশ নেবেন এই অলরাউন্ডার। এই দুই টুর্নামেন্ট খেলে আসন্ন আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রস্তুতি সারবেন সাকিব। শনিবার সিলেটে বেশ ফুরফুরে মেজাজে ব্যাট-বল হাতে অনুশীলন করেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সাকিবকে পেয়ে খুব উচ্ছ্বসিত ছিল ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের ক্রিকেটাররা। অপুর সঙ্গে সাকিবকে বোলিং করেছেন চারদিনের ম্যাচে দুর্দান্ত খেলা হাসান মুরাদ। হাত ঘুরিয়েছেন মোসাদ্দেকও। দুপুরে নেটে নিজেকে ঝালিয়ে নিয়েছেন সাকিব। তাছাড়া বোলিংয়ের সময় তার লক্ষ্যটা ছিল শুধুই স্ট্যাম্পের দিকে। মাঝে মাঝে বাউন্সার আর স্লোয়ার বেশ ভালোই বোলিং করেছেন। এরপর ব্যাটিং অনুশীলনেও ঘাম ঝরিয়েছেন। নেটে বোলারদের বিপরীতে বেশ সাবলীল দেখা গেছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে। অপুর সঙ্গে সাকিবকে বোলিং করেছেন হাসান মুরাদ ও মোসাদ্দেক। এদিন কিছুতেই সাকিবের ব্যাটিং ক্ষুদা মিটছিল না। প্রথম বল থেকেই খেলা শুরু করলেন শটস। মিড অফ, মিড অন, লং অফ, লং অন কোনো জায়গাই বাদ রাখেননি। এমনকি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বেশ কয়েকবার উড়িয়ে উড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছেন। বোলার-থ্রোয়ারদের সঙ্গে ফিল্ডার পজিশন ঠিক করেছেন কিছুক্ষণ পরপর। চেষ্টা করতেন ফাঁকা জায়গায় শটস খেলার।

শনিবার সিলেটে অনুশীলন শেষে প্যাভিলিয়নে ফিরছেন সাকিব আল হাসান

তবে যাই হোক বিসিএলে সাকিব ফেরায় বেশ উত্তেজনা ছড়াবে বলার অপেক্ষা রাখে না। তিনি বেশ কিছুদিন ক্রিকেটের বাইরে থাকলেও নিজেকে প্রস্তুত করার মন্ত্রটা ভালোই জানেন। বিসিএলের পর বিপিএলে অংশ নেবেন এই অলরাউন্ডার। এই দুই টুর্নামেন্ট খেলে আসন্ন আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রস্তুতি সারবেন সাকিব। গত পরশু তিনি ছিলেন একটি প্রতিষ্ঠানের পণ্যদূত হওয়ার আয়োজনে। সেখানেই সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বলেন, এগুলো সবই আমার প্রস্তুতির অংশ। কারণ, এর পরই আমাদের টানা আন্তর্জাতিক সিরিজ রয়েছে। আমার লক্ষ্য এটাই যে সেরা ফিটনেস ও প্রিপারেশন নিয়ে যেন আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটটা শুরু করতে পারি। তার জন্য এটা ভালো একটা বিল্ডআপ বলে আমি মনে করি। বিসিএলের কয়েকটা ম্যাচ আমি খেলতে পারি, এরপর বিপিএলে ম্যাচগুলো থেকে কনফিডেন্স নিতে পারি। এরপর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি আছে। আমার মনে হয় সেই সিরিজটাকে এগুলো (বিসিএল ও বিপিএল) খুব ভালো কমপ্লিমেন্ট করবে। সে কারণেই আসলে প্রস্তুতিটা নেয়া। তাছাড়া বিপিএলে আমি আমাদের দল নিয়ে বলতে পারব। আমাদের বেশ ভালোই একটা ব্যলেন্স দল হয়েছে। যদিও সব দলই মনে হয় আমার কাছে সমান শক্তিশালী। যেহেতু আটজন লোকাল প্লেয়ার খেলবে তাই কোনো পার্থক্য নেই দলগুলোর ভেতরে। এখন মাঠে যে ভালো পারফর্ম করে সেই আসলে ভালো করবে।

এদিকে কদিন আগে বিসিএলের দীর্ঘ পরিসরের ফাইনালে লড়াই করেছে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল ও বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল। যেখানে হাড্ডাহাডি লড়াই শেষে শিরোপা ঘরে তুলেছে মধ্যাঞ্চল। তবে বিশ্বকাপ পাওয়া চোটে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে পারেননি। পারিবারিক কারণে ছুটি নেয়ায় নিউজিল্যান্ড সফরে যাননি সাকিব। তিনি বিসিএসের লঙ্গার ভার্সনেও ছিলেন না। তাছাড়া বিসিএলের তিনবারের চ্যাম্পিয়ন ওয়ালটন সেন্ট্রালের হয়ে কখনো খেলা হয়নি সাকিবের। জোনভিত্তিক এ প্রতিযোগিতায় এর আগে দলটির জার্সিতে নিয়মিত দেখা গেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। সাদা বলের ক্রিকেটে সাকিব সর্বশেষ খেলেছিলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে বিশ্বকাপের শেষ দুই ম্যাচ তিনি খেলতে পারেননি। এরপর তাকে পাওয়া যায়নি পাকিস্তানের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও প্রথম টেস্টে। দ্বিতীয় টেস্টে খেলেছিলেন সাকিব। ম্যাচ অনুশীলনের ঘাটতিতে বিপিএলের আগে তাই বিসিএলের ওয়ানডে আসরে খেলা আদর্শ মনে করছেন তিনি। বিপিএলে ফরচুন বরিশালকে নেতৃত্ব দেবেন সাকিব। তামিম সর্বশেষ স্বীকৃত পর্যায়ের কোনো ম্যাচ খেলেছিলেন নেপালে এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগে। গত অক্টোবর ওই টুর্নামেন্টে চোট পেয়েই তিনি আছেন মাঠের বাইরে। বিপিএলের আগে বিসিএলে মাঠে ফিরছেন তামিমও।

একটা সময় ছিল যখন ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট জাতীয় লিগে জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটাররাও খেলতেন। ঢাকার বাইরের দর্শকরা সুযোগ পেতেন কাছ থেকে তাদের খেলা দেখার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ব্যস্ততায় জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের এখন আর খুব বেশি সুযোগ হয় না ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে খেলার। অনেকের আবার অনীহাও থাকে।

সাকিবের কথাই ধরুন। ২০১২ সালের পর এ পর্যন্ত ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে মাত্র একটি ম্যাচই খেলেছেন তিনি, সেটিও ২০১৫ সালের জাতীয় লিগে। অন্যরাও যে খুব বেশি ম্যাচ খেলেন, তা নয়। মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবালরা সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এক-দুটি ম্যাচ হলেও খেলেছেন। তারকা ক্রিকেটারদের ঘরোয়া ক্রিকেট মানে তাই মূলত বিপিএল আর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগই। এবার এর সঙ্গে যোগ হচ্ছে বিসিএলও।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়