সেতুমন্ত্রীর বেয়াইকে আওয়ামী লীগ থেকে অব্যাহতি

আগের সংবাদ

অর্থ পাচার ও কর ফাঁকি দিতে মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানি

পরের সংবাদ

পঞ্চম ধাপে জামানত হারালেন নৌকার ১৬ প্রার্থী

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৮, ২০২২ , ৯:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৮, ২০২২ , ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ

ইউনিয়ন পরিষদের পঞ্চম ধাপের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কমপক্ষে ১৬ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামানত হারিয়েছেন। এর মধ্যে সর্বনিম্ন ৪২ ভোট পেয়েছেন ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুর ফলসী ইউনিয়নের নিমাইচাঁদ মণ্ডল। তিনি তিনটি কেন্দ্রে একটি করে ভোট পান।

ফলসী ইউনিয়নে মোট ভোটার ১০ হাজার ৪২৬। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ভোট পড়েছে আট হাজার ৪৪৪। এর মধ্যে চার হাজারের বেশি ভোট পেয়ে বিজয়ী হন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বজলুর রহমান। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চার হাজারের কাছাকাছি ভোট পান।

আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা প্রতীকের ১৬ প্রার্থীর জামানত হারানোর তথ্য পাওয়া গেছে।

ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর জামানতের পরিমাণ পাঁচ হাজার টাকা। আট ভাগের এক ভাগেরও কম পেলে তার ওই জামানত বাতিল হয়ে যায়। তখন ওই অর্থ সরকারের কোষাগারে জমা হয়। নির্বাচনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় যারা থাকেন, তাদের এই জামানত বাতিল হয় না।

ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা যায়, পঞ্চম ধাপের নির্বাচনের বেসরকারি ফলাফল অনুসারে, এবার নৌকা প্রতীকের বেশ কিছু প্রার্থী মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকতে পারেননি। অর্ধেকের বেশি ইউপিতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা হেরে গেছেন।

১৬ প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন

ঝিনাইদহের নিমাইচাঁদ মণ্ডল ছাড়াও নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের মধ্যে নীলফামারীর ডোমারের ভোগডাবুড়ী ইউপির হাফিজুর রহমান (৫৪২), কেতকীবাড়ী ইউপির রবিউল ইসলাম স্বাধীন (১৮৮), গাইবান্ধার সাঘাটার মুক্তিনগরে আরশাদ আজিজ (এক হাজার ২০০), ফুলছড়ির উদাখালীতে আসাদুজ্জামান বাদশা (৪৪০), চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরের নারায়ণপুরে শহিদুল ইসলাম (২৭৮), কুষ্টিয়া সদরের বটতৈল ইউপিতে মোমিন মণ্ডল (১১৪), আলমপুরে আব্দুল হান্নান (১৭৭), হাটশ-হরিপুরে সম্পা মাহমুদ (২৩২), পাবনার ফরিদপুরের বি-নগরে আজাহার আলী সরকার (৭৬৭), টাঙ্গাইলের বাসাইলে কাঞ্চনপুর ইউপিতে রাকিব খান শহীদ (৮৫১), সাভারের কাউন্দিয়ায় মেশের আলী (৮৫৮), নরসিংদীর শিবপুরের বাঘাবতে মোহাম্মদ জহিরুল হক (এক হাজার ৩৪৮), বগুড়ার দুপচাঁচিয়ার চামরুল ইউপিতে আজম হোসেন (এক হাজার ৮৭৯), হবিগঞ্জের মাধবপুরের নোয়াপাড়ায় মোজাহিদ বিন ইসলাম (এক হাজার ২৫৪) এবং বাঘাসুরা ইউপির এখলাস মিয়া (এক হাজার ৮৬৯) ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছেন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়