বিশিষ্ট তবলাচার্য মদনগোপাল দাস আর নেই

আগের সংবাদ

সিইসিসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

পরের সংবাদ

শওকত ওসমানের জন্মবার্ষিকী পালন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২, ২০২২ , ১০:০৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০২২ , ১০:০৪ অপরাহ্ণ

আলোচনা ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে প্রয়াত কথাসাহিত্যিক শওকত ওসমানের ১০৫তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেছে শওকত ওসমান স্মৃতি পরিষদ।

রবিবার (২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় এই আয়োজন।

এতে অতিথি ছিলেন শওকত ওসমানের ছেলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা, শওকত ওসমানের নাতি ইশরার ওসমান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাদুঘরের মহাপরিচালক খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান।

পিতার স্মৃতিচারণে ইয়াফেস ওসমান বলেন, আজ বাংলাদেশে কথাশিল্পী শওকত ওসমানের মত সৎ সাহসী লেখকের বড্ড অভাব। বাবা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মতো আজীবন শোষিতের পক্ষে তার লেখনী ধরেছেন। তার লেখায় দারিদ্রতার চিত্র ফুটে উঠেছে। বর্তমানে তেমন কোনো কালজয়ী লেখা আর চোখে পড়ে না।

মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেন, কথাশিল্পী শওকত ওসমানের রচিত কালজয়ী সাহিত্য আর রচিত হচ্ছেনা। এ কি প্রতিভার দৈন্যতা নাকি অর্থ লোভী সাহিত্যসেবীদের পথভ্রষ্টের লক্ষণ।

ইশরার ওসমান বলেন, আমি কথাশিল্পী শওকত ওসমানের কাছ থেকে মানুষকে মানুষ হিসেবে শ্রদ্ধা করতে শিখেছি। সমাজে বসবাস করতে গেলে মানুষই মানুষের কাছে আসবে। মানুষই মানুষের সবাই মিলে সংগ্রাম করবে, তবেই না সমাজ মানুষের বেড়ে ওঠার জন্য তাকে মেলে ধরবে। দাদু অনেক দুঃখ করে বলতেন এদেশে মানুষ হওয়ার আগে, হিন্দু বা মুসলমান হওয়া লাগে।

স্বাগত বক্তব্যে পরিষদের সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক দিপু সিদ্দিকী ঢাকার একটি রাস্তা শওকত ওসমানের নামে নামকরণের প্রস্তাব করেন।

সবশেষে কথাশিল্পী শওকত ওসমান রচিত ও তার ছেলে জাঁনেসার ওসমান নির্মিত অনুদানের চলচ্চিত্র ‘পঞ্চসঙ্গী’ প্রদর্শিত হয়।

রি-এসবি/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়