টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

আগের সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড সংক্রমণের ৭৩ শতাংশই ওমিক্রন

পরের সংবাদ

ইয়েমেন বিমানবন্দরে সৌদি জোটের বিমান হামলা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২১, ২০২১ , ১২:০১ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ২১, ২০২১ , ১২:০২ অপরাহ্ণ

ইয়েমেনের সানা বিমানবন্দরে বিমান হামলা চালিয়েছে সৌদি সামরিক জোট। হামলার আগে সরে যেতে বলা হয় জাতিসংঘের কর্মী ও সাধারণ মানুষকে। আজ সোমবার (২১ ডিসেম্বর) সেখানেই বিমান হামলা চালায় সৌদি জোট।

জোটের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা বিমানবন্দরে সামরিক জায়গাগুলিতে আক্রমণ চালিয়েছে। কারণ, এই বিমানবন্দর ব্যবহার করে হুতি বিদ্রোহীরা। এখান থেকে সীমান্ত পেরিয়ে তারা আক্রমণ চালায়। খবর ডয়চে ভেলের।

বিমান হামলার আগে জোটের পক্ষ থেকে জাতিসংঘ ও সাধারণ মানুষকে বিমানবন্দর ছাড়ার অনুরোধ করা হয়েছিল। এ বিমান হামলায় বিমানবন্দরের কতটা ক্ষতি হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। কেউ নিহত হয়েছে কিনা সে বিষয়েও কিছু জানা যায়নি।

সৌদির নেতৃত্বাধীন জোটের মুখপাত্র তুর্কি আল-মালিকি জানিয়েছেন, বিমানবন্দরে মোট ছয়টি জায়গায় আক্রমণ করা হয়েছে। তবে সেই জায়গাগুলিতে আক্রমণ করা হলেও বিমান চলাচলের উপর কোনো প্রভাব পড়েনি বলে তার দাবি।

এর আগে রবিবার জোটের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, এই বিমানবন্দর থেকে একটি ড্রোন সৌদির এলাকায় পাঠানো হয়েছিল। সেই ড্রোন ধ্বংস করা হয়।

সৌদি সামরিক জোটের দাবি, বিমানবন্দরটি ইরানের মদদপুষ্ট হুতি বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে। কয়েক বছর ধরে হুতি বিদ্রোহীরা সৌদি আরবকে লক্ষ্য করে রকেট ছুঁড়ে আসছে। তবে এর ফলে সৌদির বড় ক্ষতি হয়নি।

ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের দখলকৃত বিমানবন্দরটি জাতিসংঘ ত্রাণ পৌঁছনোর কাজে ব্যবহার করে।

ইয়েমেন হলো আরব বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে একটি। ২০১৪ সালের গৃহযুদ্ধের পর থেকে সেখানে তীব্র হয়েছে মানবিক সংকট।

২০১৪ সালেই হুতিরা সানা বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নেয়। ২০১৫ সালে সৌদি আরব এই সংঘাতে হস্তক্ষেপ করে। তাদের ভয় ছিল, হুতি বিদ্রোহীরা এই অঞ্চলে ‘বড় শক্তি’ হিসেবে উঠে আসতে চলেছে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়