নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ১৬ জানুয়ারি

আগের সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী মালদ্বীপ সফরে যাচ্ছেন ২২ ডিসেম্বর

পরের সংবাদ

মানুষের ভালোবাসায় সৈকতে ছুটে আসে ডলফিনের দল

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৩, ২০২১ , ১:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১৩, ২০২১ , ১:০৮ অপরাহ্ণ

ডলফিনপ্রেমীদের জন্য এই পৃথিবীতে একটি জায়গা আছে। সে জায়গার নাম মানকি মিয়া। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এটিই একমাত্র সমুদ্রসৈকত যেখানে সারাদিন ডলফিনের বিচরণ উপভোগ করা যায়। প্রায় প্রতিদিনই এখানে দর্শনার্থীরা এসে ভিড় করেন।

জনশ্রুতি আছে, ষাটের দশকে অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিম উপকূলে অবস্থিত মানকি মিয়া সমুদ্রসৈকতে স্থানীয় জেলেরা প্রথম ডলফিন খুঁজে পায়। এরপর থেকে প্রতি বছর ডলফিন দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসেন পর্যটকরা। খবর অডিটিসেন্ট্রালের।

মানুষের টানে সৈকতে এসেছে ডলফিন

অস্ট্রেলিয়ার নৌবাহিনীর গবেষকরা ১৯৮০ সালে জানান, সমুদ্রে আসা মানুষকে খেয়ে নিচ্ছে পূর্ণবয়স্ক ডলফিন। একই সঙ্গে তাদের সন্তানরা দ্রুতগতিতে বেড়ে উঠছে। এ খবর শুনে দেশটিতে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।

অস্ট্রেলিয়ার মানকি মিয়া সমুদ্রসৈকতে ডলফিনের সঙ্গে খেলা করছেন দুজন দর্শনার্থী

তবে এখন মানুষ অনায়াসে এ সমুদ্রসৈকতে ডলফিন দেখতে আসছেন। অনেকে সামুদ্রিক প্রাণী ডলফিনের সঙ্গে খেলা করতে ছুটে আসেন। আবার কেউ কেউ নিছক ভালোবাসার টানে চলে আসেন ডলফিনের সান্নিধ্য পেতে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়