বরযাত্রী হয়ে গুলিবিদ্ধ হলেন যুবক

আগের সংবাদ

তুরস্কে বঙ্গবন্ধুর নামে পার্ক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী যাচ্ছেন আজ

পরের সংবাদ

এনসিবির কাছে হাজিরা দিতে চান না শাহরুখ-পুত্র আরিয়ান

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১১, ২০২১ , ১১:০২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১১, ২০২১ , ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ

এনসিবির করা মাদক মামলায় আবারও মুম্বাই হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন শাহরুখ-পুত্র আরিয়ান খান। গোয়াগামী এক প্রমোদতরী থেকে গত ২ অক্টোবর কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার হাতে আটকের পর ৩ অক্টোবর গ্রেপ্তার হন তিনি। এরপর আদালতে মাদক আইনের একাধিক ধারায় অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে। যদিও আরিয়ানের কাছ থেকে কোনো ধরনের নিষিদ্ধ মাদক পাওয়া যায়নি।

এরপর প্রায় একমাস কারাগারে থাকেন আরিয়ান। গত ২৮ অক্টোবর একাধিত শর্তে তাকে জামিনে মুক্তি দেয় মুম্বাই হাইকোর্ট। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

আরিয়ানের জামিনের অন্যতম শর্ত হলো এনসিবির ব্যালাড এস্টেটের কার্যালয়ে সাপ্তাহিক হাজিরা। প্রতি শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর দুইটার মধ্যে এনসিবির মুম্বাই সদর দপ্তরে উপস্থিত হতে হয় আরিয়ানকে। কিন্তু সেই শর্তের পরিবর্তন চান আরিয়ান। শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) মুম্বাই হাইকোর্টে সেই আবেদন জমা দিয়েছেন শাহরুখ-পুত্র।

কিন্তু কেন এর কারণ কী? সে ব্যাপারে শাহরুখ-পুত্র আরিয়ান জানান, ইতোমধ্যেই এই মাদক মামলা এনসিবির মুম্বই দপ্তর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে দিল্লির এক বিশেষ তদন্তকারী দলের হাতে। পাশাপাশি প্রতি শুক্রবার এনসিবির অফিসে হাজিরা দেওয়ার সময় মুম্বাই পুলিশের আটোসাঁটো নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে রাখা হয় তাকে। দপ্তরের বাইরে ভিড় করে দাঁড়িয়ে থাকেন প্রচুর সংবাদকর্মী। ফলে ভোগান্তি পোহাতে হয় আরিয়ানকে।

আগামী সপ্তাহেই আরিয়ানের এই আবেদন শুনবেন বিচারপতি সামব্রে। গত ২৮ অক্টোবর আরিয়ানের জামিন মঞ্জুর হওয়ার দুদিন পর ৩০ তারিখ নিজ বাসভবন মান্নাতে আরিয়ান। এরপর জামিনের শর্ত মেনে প্রতি শুক্রবারই এনসিবির দপ্তরে হাজির হয়েছেন তিনি। কেবলমাত্র একদিন তার শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দেওয়ায় উপস্থিত ছিলেন না।

জামিনের শর্ত মেনে আগেই নিজের পাসপোর্ট জমা দেন আরিয়ান। তদন্ত চলাকালীন কোনোভাবেই দেশত্যাগ করতে পারবেন না তিনি। এমনকি মুম্বাই ছাড়ার ক্ষেত্রেও নিতে হবে এনসিবির অনুমতি। এই মামলার কোনো সহ-অভিযুক্তর সঙ্গে কোনো প্রকারের যোগাযোগ রাখা যাবে না। তদন্তের সঙ্গে জড়িত কোনও সাক্ষীকে প্রভাবিত করা বা তথ্য-প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা থেকে ও এই ধরনের কোনো ধরনের লবিং থেকেও বিরত থাকবেন তিনি।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়