নোয়াখালীতে গণপরিবহনে হাফ পাসের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আগের সংবাদ

আফ্রিকা থেকে কেউ এলে বোর্ডিং পাস পাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পরের সংবাদ

বাংলাদেশকে ২ কোটি ৯০ লাখ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০২১ , ১১:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০২১ , ১১:১৬ অপরাহ্ণ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশকে বিনা মূল্যে করোনা ভাইরাসের আরও ২ কোটি ৯০ লাখ টিকা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স (অ্যামচেম) বাংলাদেশের রজতজয়ন্তী উদ্‌যাপন অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন এই তথ্য জানান। ঢাকায় ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে বৃহস্পতিবার ( ২ ডিসেম্বর) আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে সহায়তা দিয়ে আসছে। যখন টিকা পেতে বাংলাদেশ সংকটে পড়েছিল এবং আমরা সব জায়গায় টিকা খুঁজছিলাম, ঠিক তখন যুক্তরাষ্ট্র ৫৫ লাখ টিকা দিয়েছিল। এখন আমরা দেশটির কাছ থেকে আরও ২ কোটি ৯০ লাখ টিকা পাওয়ার প্রতিশ্রুতি পেয়েছি।

মন্ত্রী আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে প্রধান বিনিয়োগকারী। বাংলাদেশে দেশে-বিদেশি বিনিয়োগের ২০ শতাংশই হলো যুক্তরাষ্ট্রের। তাদের বিনিয়োগ মূলত এনার্জি তথা জ্বালানি খাতে। কিন্তু এখন যুক্তরাষ্ট্র অন্যান্য খাতেও বিনিয়োগ বাড়াতে পারে। কারণ, বাংলাদেশ বর্তমানে বিনিয়োগের জন্য একটি উত্তম জায়গা। এখানে বিনিয়োগের উপযুক্ত পরিবেশ রয়েছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষ জনশক্তিও পাওয়া যাবে। যুক্তরাষ্ট্র সুযোগটি নিতে পারে।

এ কে আব্দুল মোমেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের কাছে দুটি প্রস্তাব তুলে ধরেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র থেকে তুলা আমদানির ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের মাত্রাতিরিক্ত কর দিতে হয়। তাই উচ্চ করহার কমানো দরকার। দ্বিতীয় প্রস্তাবে তিনি জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় যৌথ বিনিয়োগের আহ্বান জানান। বলেন, বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া দেশগুলোর অন্যতম। তাই যুক্তরাষ্ট্র জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতি মোকাবিলায় যৌথ বিনিয়োগ করতে পারে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, নদী খনন, স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ, নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎপাদন প্রভৃতি খাতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করতে পারে। এতে দুই দেশই লাভবান হবে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স (অ্যামচেম) বাংলাদেশের সভাপতি সৈয়দ এরশাদ আহমেদ। অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অ্যামচেমের সাবেক সভাপতি মো. নূরুল ইসলাম, আফতাব উল ইসলাম, ফরেস্ট ই কুকসন প্রমুখ।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়