যাত্রা শুরু করলো ই-কমার্স সাইট দেখকডটকম

আগের সংবাদ

ওমিক্রনের শংকা: দ. আফ্রিকা থেকে আসা ৭ জনের বাড়িতে লাল পতাকা

পরের সংবাদ

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে সহিংসতা, নিহত বেড়ে ১৩

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৯, ২০২১ , ১০:৫০ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৯, ২০২১ , ১০:৫১ অপরাহ্ণ

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জন হয়েছে। রবিবার ভোট হয়েছে ৯৮৬ ইউপিতে। এ দিন বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষে আটজনের মৃত্যু হয়। আগের রাতে, ভোট চলাকালে ও পরবর্তী সহিংসতাসহ মোট ১৩ জন নিহতের তথ্য পাওয়া গেছে। এসব ঘটনায় আহত হয়েছেন শতাধিক। সর্বশেষ সোমবার রাতে কক্সবাজারের চকরিয়ায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় গিয়াস উদ্দীন মিন্টু (৪৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হন। নিহত গিয়াস উদ্দিন মিন্টু (৪৫) ১ নম্বর ওয়ার্ড ঢেমুশিয়া পাড়ার মাস্টার আবুল মকসুদের ছেলে ও আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরে হোছাইন আরিফের ভাগনে। সোমবার রাত চকরিয়া বদরখালী ইউনিয়নের গাউসিয়া মসজিদ হেফজখানা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার রাতে চকরিয়া উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নে গাউসিয়া মসজিদ হেফজখানা এলাকায় বিজয়ী নৌকার প্রার্থী নুর হোছাইন আরিফের সমর্থকরা বিজয়ী মিছিল করার সময় একই ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী (চশমা) হেফাজ সিকদারের এক-দেড় শ সমর্থক নিয়ে হামলা চালান। এ সময় তারা নৌকার প্রার্থী আরিফের ভাগনে গিয়াস উদ্দিনকে পিটিয়ে আহত করে। পরে চকরিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওসমাণ গণী বিষয়টি নিশ্চত করে জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে চকরিয়া হাসপাতালে রাখা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে এজাহার দিলে মামলা হিসেবে লিপিবদ্ধ করে তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলা ও সলঙ্গা থানার হাটিকুমরুল ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত দেলোয়ার হোসেন সাগর (১৬) নামের এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে রবিবার দুপুরে ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দুই ইউপি সদস্যের সমর্থকদের সংঘর্ষে তিনি আহত হন। সোমবার ভোরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ভোটের দিন লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের ভোট চলাকালে দু’পক্ষের সংঘর্ষে স্থানীয় এক ছাত্রলীগ নেতা নিহত হন। নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের পশ্চিম দলিরাম মাঝাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সহিংসতায় এক বিজিবি সদস্য নিহত হন।

মুন্সীগঞ্জের বাংলাবাজার ইউপিতে দুই সংরক্ষিত নারী সদস্যপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন ও পঞ্চসার ইউনিয়নে বিজয়ী ও পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে আরেকজন নিহত হন।

নরসিংদীর রায়পুরার চান্দেরকান্দি ইউনিয়নে ব্যালটবাক্স ছিনতাই চেষ্টাকালে গুলিবিদ্ধ হয়ে আরিফ ও শরিফ নামে দুজন নিহত হন। একই উপজেলার উত্তর বাখরনগর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সহিংসতায় গুলিবিদ্ধ হয়ে ফরিদ মিয়া নামে একজন নিহত হন।

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার খনগাঁও ইউনিয়নের ঘিডোব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটের ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনজন নিহত হন। তারা হলেন ঘিডোব গ্রামের আদিত্য (১৮), ছিটঘিডোব গ্রামের মোজাহারুল ইসলাম (৩৫) এবং হাবিবপুর গ্রামের হোসেন (২৬)। ভোটের আগের রাতে যশোরের শার্শার কয়রা ইউনিয়নে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়