রাজশাহীর সেই বিতর্কিত মেয়র আব্বাসকে আ.লীগ থেকে অব্যাহতি

আগের সংবাদ

করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৯

পরের সংবাদ

ছেলের লাশ ট্যাঙ্কিতে রেখে নির্বাচনী প্রচারে মা-বাবা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৬, ২০২১ , ৬:০১ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২১ , ৬:০১ অপরাহ্ণ

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে মাদকাসক্ত ছেলেকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার মা-বাবার বিরুদ্ধে। উপজেলার নরিনা ইউনিয়নের নরিনা হানিফনগর গ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে।

নিহতের নাম আব্দুল করিম (১৮)। তার মা করুনা খাতুন নরিনা ইউপি নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী সদস্য প্রার্থী হিসাবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, পেশায় পিকআপ চালক আব্দুল করিম মাদকাসক্ত। সে প্রায় রাতেই মাদক সেবন করে বাড়ি ফিরে সবাইকে নির্যাতন করত। এতে পরিবারের সবাই তার ওপর অতিষ্ঠ ছিল।

গত মঙ্গলবার রাতে মাদক সেবন নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে তার মা-বাবা তাকে বেধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায়ে প্রাণ হারায় সে। কিন্তু মৃত্যুর বিষয়টি গোপন রেখে লাশ নিজ বাড়ির টয়লেটের ট্যাঙ্কিতে ফেলে রাখে তারা। এরপর মানুষজনের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছিলেন।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সকালে বিষয়টি টের পেয়ে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা আলহাজ আলী ও মা করুনা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ।

এ বিষয়ে নরিনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলুল হক বলেন, বিষয়টি এলাকাবাসীর কাছ থেকে শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছি। পুলিশও ঘটনাস্থলে এসেছে। টয়লেটের ট্যাঙ্কি থেকে লাশ উদ্ধারের জন্য পুলিশ প্রস্তুতি নিচ্ছে। এ ঘটনার পর পুলিশ নিহতের বাবা-মাকে আটক করেছে।

শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুল মজিদ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। তবে এলাকাবাসীর মুখে মুখে রটনা শোনা যাচ্ছে, মা-বাবা তাকে হত্যার পর লাশ টয়লেটের ট্যাঙ্কিতে ফেলে দিয়েছে। এটা সঠিক কি না তা তদন্ত না করে বলা সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ ছাড়া লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়