একসঙ্গে ৪ কন্যাসন্তানের জন্ম

আগের সংবাদ

নাঈমের মৃত্যুর ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি: কাদের

পরের সংবাদ

লাউ চাষে লাখপতি কৃষক আহাদ

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৫, ২০২১ , ৩:১৭ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৫, ২০২১ , ৩:১৯ অপরাহ্ণ

হবিগঞ্জের মাধবপুরে লাউ চাষ করে লাখপতি হয়েছেন কৃষক আহাদ মিয়া। তার এই সফলতা দেখে অনেকেই এখন আগ্রহী হচ্ছেন লাউসহ সবজি চাষে।

উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের কৃষক আহাদ মিয়া উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে আর পড়াশুনা করেনি। সেনাবাহীতে চাকুরি করার ইচ্ছে থাকলেও চোখে সমস্যা থাকায় সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে পারেনি। বাবার ১০ শতক জায়গা আর কিছু জমি বর্গা নিয়ে শুরু করেন সবজি চাষ। লাউসহ বিভিন্ন রকম সবজি চাষ করে এখন তিনি লাখ টাকার মালিক। কৃষির উপার্জন দিয়ে কিনেছেন জায়গা জমি, বাড়িতে তৈরী করেছেন ঘর। ১ ছেলে আর ২ মেয়ের লেখাপড়ার খরচ আসে কৃষির আয় থেকে।

কৃষক আহাদ মিয়া জানান, তিনি একজন কৃষক। কৃষির উপরই নির্ভরশীল। লাউ চাষ করতে তার ১০/১৫ হাজার টাকা খরচ হয়। বিক্রি করেন প্রায় ২০ হাজার টাকার। আরো প্রায় ৩০ হাজার টাকার মত বিক্রি হবে। তিনি নির্ভরশীল আছেন এই কৃষির উপরেই।

কৃষক আহাদ মিয়ার স্ত্রী নাজমা আক্তার জানান, আমরা কৃষি কাজ করি, কৃষি কাজ করেই সংসার চালাই। কৃষির উপর নির্ভর।

রামনগর গ্রামের বাসিন্দা মাসুক মিয়া জানান, আহাদ কৃষির জন্য ভাল। গ্রামের মানুষ তার এইডি দেখে তার কাছ থেকে পরামর্শ করে, যক্তি করে আমরা কৃষি করুম। তখন সে বলে তোমরা কর আমি সফলতা পাইছি।

গ্রামের কৃষক সিরাজ উদ্দিন জানান, কৃষি কইরা অনেকেই সফল হইতেছে। তার কৃষি জমি দেখে উৎসাহিত হয়ে আরো অনেকে কৃষি করতেছে।

মাধবপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আল মামুন হাসান জানান, রামনগর গ্রামের কৃষক আহাদ মিয়া উনি যে সবজি চাষ করেছেন আসলে উনি সমন্বিত বালাই নাশক দমন পদ্ধতি ব্যবহার করেছেন। যার কারনে নিরাপদ সবজি করতে পারছে। এই রকম কৃষককে আমরা পুরুষ্কৃত করার চেষ্টা করি। তার উত্তর উত্তর সফলতার জন্য আমাদের উপজেলা কৃষি অফিস থেকে সব সময় সহযোগীতা থাকবে এবং তিনি যেন শুধু লাউ না আরো উচ্চ ফলনশীল সবজিগুলো আছে আধুনিক পদ্ধতি ও বিষ মুক্ত পদ্ধতিতে এ ব্যাপারে আমাদের সর্বিক সহযোগীতা থাকবে।

রি-আরডিআরআর/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়