নেত্রকোণায় দুর্বৃত্তের হাতে প্রাণ গেল যুবকের

আগের সংবাদ

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তরণের সুপারিশ অনুমোদন জাতিসংঘের

পরের সংবাদ

শ্বশুরবাড়ির সামনে জামাই: ‘বউ ফেরত চাই’

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২১ , ১১:৫৩ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২১ , ১১:৫৩ অপরাহ্ণ

সংসারে অশান্তির কারণে বাবার বাড়ি চলে আসেন গৃহবধূ। এর ফলে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন তার স্বামী। শ্বশুরবাড়িতে এসেছেন তাকে ফিরে পাওয়ার আশায়। দাবি করছেন, ‘বউ ফেরত চাই’।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলার মালবাজার মহকুমার কাঠামবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ‘বউ ফেরত চাই’ দাবি করা স্বামীর নাম হরিদাস মণ্ডল। থাকেন মালবাজারের ক্রান্তি ব্লকের কাঠামবাড়ি এলাকায়। পেশায় রাজমিস্ত্রি। চার বছর আগে জ্যোৎস্না মণ্ডল। ইতোমধ্যেই তাদের এক মেয়ে জন্মগ্রহণ করেছে। খবর জি-নিউজ ও সংবাদ প্রতিদিনের।

হরিদাসের দাবি, কয়েক বছর আগে তুচ্ছ কারণে সাংসারিক অশান্তি শুরু হয়। তারপরই মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে যান হরিদাসের স্ত্রী। শ্বশুরবাড়ির লোকজনেরা জোর করে তার স্ত্রী-সন্তানকে আটকে রেখেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে স্ত্রী জ্যোৎস্নার ভাষ্য, হরিদাসের সঙ্গে আমি কোনোমতেই সংসার করতে চাই না। কারণ সে আমার ওপর শারীরিক অত্যাচার করে। সে কারণে আমি বাবার বাড়ি চলে এসেছি। এতে আমার মা-বাবার কোনো দোষ নেই।

জ্যোৎস্না আরও বলেন, কয়েকদিন আমার বাবার বাড়িতেও ছিলেন স্বামী হরিপদ। বাপের বাড়িতেও আমাকে মারধর করত সে। আমি আর তার সঙ্গে থাকতে চাই না। এভাবে অত্যাচার সহ্য করতে পারছি না। তাই আমি মেয়েকে নিয়ে বাপের বাড়িতেই থাকতে চাই। আমার এবং মেয়ের খরচ দিতে হবে স্বামীকেই।

এদিকে স্ত্রী এবং সন্তানকে ফিরে পাওয়ার দাবিতে মঙ্গলবার দুপুর থেকে শ্বশুরবাড়ির সামনে বসেন হরিদাস। হাতে ছিল স্ত্রী ও মেয়ের ছবি। তিনি বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত স্ত্রী-মেয়েকে ফিরে পাচ্ছি ততক্ষণ আমার ধরনা চলবে। এর জন্য মরতেও রাজি আমি।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়