খালেদার বিদেশে চিকিৎসা: আইনি পদক্ষেপের কথা ভাবছে বিএনপি

আগের সংবাদ

সাতকানিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল বাব-ছেলের

পরের সংবাদ

এবি ও এনআরবিসি ব্যাংকের বন্ড অনুমোদন

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২১ , ৯:৩৪ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২১ , ৯:৩৬ অপরাহ্ণ

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এবি ও এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের যথাক্রমে ৬০০ কোটি ও ৩০০ কোটি টাকার বন্ডের অনুমোদন দিয়েছে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। কমিশন সভা শেষে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম এ তথ্য জানিয়েছেন।

তথ্য অনুযায়ী, এবি ব্যাংকের ৬০০ কোটি টাকার ট্রান্সফারেবল, আনসিকিউর্ড, নন-কমিউলেটিভ, কন্টিজেন্ট-কনভার্টেবল পারপেচ্যুয়াল বন্ডের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে কমিশন। বন্ডটির ৫৪০ কোটি টাকা প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ও বাকি ৬০ কোটি টাকা পাবলিক অফারের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১ হাজার টাকা। বন্ডটির কুপন হার ৬ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশ।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান, মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ইনস্যুরেন্স কোম্পানি, তালিকাভুক্ত ব্যাংক, আঞ্চলিক রুরাল ব্যাংক, সংগঠন, ট্রাস্ট, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য যোগ্য বিনিয়োগকারী ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে বন্ডটি ইস্যু করা হবে। এ বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ উত্তোলন করে এবি ব্যাংকের মূলধন ভিত্তি শক্তিশালী করবে। প্রাইভেট প্লেসমেন্ট ও প্রাইভেট অফার উভয় ক্ষেত্রে এই বন্ডের ন্যূনতম সাবস্ক্রিপশন ১ হাজার টাকা।

বন্ডটির ট্রাস্টি হিসেবে এমটিবি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং অ্যারেঞ্জার ও ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে রিভারস্টন ক্যাপিটাল লিমিটেড কাজ করছে। আর আন্ডাররাইটার হিসেবে দায়িত্বপালন করবে বিএমএসএল ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

অপরদিকে, এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের ৩০০ (তিনশত) কোটি টাকার ০৭ বছর মেয়াদী বন্ড অনিরাপদ, অ-পরিবর্তনযোগ্য, সম্পূর্ণরূপে খালাসযোগ্য, ফ্লোটিং রেট অধীনস্থ। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ও উচ্চ সম্পদশালী একক বিনিয়োগকারীদের মাঝে প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে বন্ডটি ইস্যু করা হবে।

এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ উত্তোলন করে এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড ক্যাপিটাল বেস শক্তিশালী করবে। এই বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য এক কোটি টাকা। বন্ডটির ট্রাস্ট্রি এবং বাধ্যতামূলক লিড অ্যারেঞ্জার হিসাবে যথাক্রমে ইউসিবি ইনভেস্টম্যান্ট লিমিটেড এবং সিটি ব্যাংক ক্যাপিটাল রিসোর্স লিমিটেড (সিবিসিআরএল) কাজ করছে। এছাড়াও বন্ডটিকে বিকল্প ট্রেডিং বোর্ড এ অন্তর্ভূক্ত করার জন্য শর্তারোপ করা হয়।

রি-এমএস/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়