জামিন পেলেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ

আগের সংবাদ

ইউপি নির্বাচন ঘিরে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর অস্ত্র মহড়া

পরের সংবাদ

সোহেলকে ৯ রাউন্ড গুলিতে মৃত্যু নিশ্চিত করে পালায় দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২১ , ৯:২৭ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২২, ২০২১ , ১১:১০ অপরাহ্ণ

বিকেল তখন সাড়ে চারটা। কুমিল্লা নগরের পাথরিয়াপাড়া থ্রি স্টার এন্টারপ্রাইজে কাউন্সিলর কার্যালয়ে বসা ছিলেন কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেল। গল্পে মেতেছিলেন ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি হরিপদ সাহার সঙ্গে। তাদের সঙ্গে কাউন্সিলর অফিসে ছিলেন আরও ৮ থেকে ১০ জন নেতা-কর্মী। এ সময় কালো মুখোশধারী একদল দুর্বৃত্ত কার্যালয়ে ঢুকে সোহেলকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পিস্তলের গুলি তার মাথা, বুক, পেট ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাগে। ক্ষত গুণে দেখা যায় কাউন্সিলরকে এক এক করে ৯টি গুলি করে দুর্বৃত্তরা। মৃত্যু নিশ্চিত মনে করে পালিয়ে যায় তারা।

এ সময় ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি হরিপদ সাহাসহ আরও অন্তত পাঁচজন গুলিবিদ্ধ হন। গুলির শব্দ শুনে আশপাশের মানুষ ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীরা সীমান্তবর্তী বউবাজার এলাকার দিকে পালিয়ে যান। গুলিবিদ্ধ কাউন্সিলর সোহেল ও তার সহযোগী হরিপদ সাহাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তাদের মৃত্যু হয়।

নিহত কাউন্সিলরের স্ত্রী শাহনাজ আক্তার রুনার আহাজারি। ছবি: ভোরের কাগজ

৫২ বছর বয়সী সোহেল কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর প্যানেল মেয়র এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য। মহানগর যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়কের দয়িত্বও তিনি পালন করছেন। কুমিল্লা নগরীর সুজানগর এলাকার শাহজাহান মিয়ার ছেলে সোহেল এর আগেও এক মেয়াদে ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন। তিনি ১৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

ওই ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি হরিপদ সাহা সাহাপাড়ার রমনী মোহন সাহার ছেলে।

কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার ওসি আনোয়ারুল আজিম বলছেন, স্থানীয় আধিপত্যের বিরোধে’ এই হামলা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন তারা। হামলাকারীদের ধরতে পুলিশ এরই মধ্যে মাঠে নেমেছে।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়