কঠিন বার্তা দিল আওয়ামী লীগ

আগের সংবাদ

আজকের সংবাদপত্র পর্যালোচনা

পরের সংবাদ

পাকিস্তানি পতাকা হাতে স্টেডিয়ামে ওরা কারা?

প্রকাশিত: নভেম্বর ২১, ২০২১ , ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২১, ২০২১ , ৯:১৮ পূর্বাহ্ণ

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও মিরপুরের গ্যালারিতে পাকিস্তানি দর্শকদের পাশাপাশি বাংলাদেশি দর্শকদের হাতে পাকিস্তানের পতাকা দেখা গেছে। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের আউট করলে বা পাকিস্তানের কোনো ক্রিকেটার ছক্কা মারলে দর্শকদের উল্লাস দেখে বুঝার উপায় ছিল না এটা বাংলাদেশের মাঠ নাকি অন্যকোনো দেশের! এরপরই প্রশ্ন উঠেছে ঢাকার মাঠে পাকিস্তানি পতাকা হাতে ওরা কারা?

হোম গ্রাউন্ডে সিরিজ মানেই স্বাগতিক দলের দর্শকে পরিপূর্ণ গ্যালারি। বাংলাদেশের বেলায়ও এর ব্যতিক্রম হয়নি কখনো। কিন্তু এবার মিরপুরে প্রথম ও দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে স্টেডিয়ামের দর্শক উল্লাস দেখে কিছু সময়ের জন্য মনে হতেই পারে, এটা ঢাকা নয় লাহোর! হাসান আলি বাংলাদেশি ক্রিকেটারকে আউট করলে বা শাদাব খান ছক্কা হাঁকালে দর্শকদের উল্লাস দেখেও তা মনে হওয়া স্বাভাবিক।

আগের দিনের মতো গতকালও পূর্ব দিকের গ্যালারিতে পাকিস্তানের কিছু পতাকা দেখা গেছে। শুধু তাই নয়, চাঁদ-তারা খচিত পতাকা হাতে উল্লাসও করেছেন অনেক দর্শক। এমনকি খেলা শেষে বেরিয়ে যাওয়ার পথে পতাকা হাতে কেউ কেউ বলেছে, আমরা বাংলাদেশি হলেও পাকিস্তানকে সমর্থন করি। তরুণদের এসব কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

পাকিস্তানি দূতাবাসের লোকজন ওই পতাকা বহন করলে কোনো কথাই ছিল না। কিংবা ঢাকায় অবস্থানরত কোনো পাকিস্তানি তাদের জাতীয় পতাকা নিয়ে মাঠে এলেও কেউ হয়ত একটি কথাও বলত না। কিন্তু বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে পাকিস্তানের পতাকা নিয়ে খেলা দেখতে আসা এবং মাঠে পাকিস্তানকে সমর্থন করা, পাকিস্তানের সাফল্য-

জয়ে উল্লাস করা যে রীতিমতো গ্লানির, দৈন্যতা কে বোঝাবে সেই সমর্থকদের! বাংলাদেশি দর্শকদের হাতেও পাকিস্তানের পতাকা দেখার দৃশ্য দেখে কোটি কোটি বাঙালির মতো সাবেক টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার হৃদয়েও রক্তক্ষরণ হয়েছে। মাশরাফি বিন মুর্তজা শুক্রবার তার ফেসবুক আইডিতে লেখেন- ‘খেলার সঙ্গে কোনো কিছু মেলানো যায় না এটা ঠিক, কিন্তু খেলাটা যখন আমাদের দেশে আর খেলছে আমাদের দেশ, সেখানে অন্য যে দেশই খেলুক না কেন, তাদের পতাকা তাদের দেশের মানুষ ছাড়া আমাদের দেশের মানুষ উড়াবে, এটা দেখে সত্যি কষ্ট লাগে। যে যাই বলুক, ভাই দেশটা কিন্তু আপনার। আজ হয়নি তো কাল হবে, না হলে পরশু হবে। আপনারা পাশে না থাকলে আর হবেই না। হারি বা জিতি স্টেডিয়ামে আমাদের দেশের পতাকা উড়ুক, চিৎকার হোক বাংলাদেশ।’

প্রসঙ্গত, এই সফরে বাংলাদেশে পা রেখে পাকিস্তান দল মিরপুরের বিসিবি একাডেমি মাঠে অনুশীলনের সময় তাদের পতাকা উড়ায়। তাতেও জনমনে ক্ষোভ তৈরি হয়।

ডি-এফবি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়