নিউজ ফ্ল্যাশ

আগের সংবাদ

সমতায় ফিরতে মরিয়া টাইগাররা

পরের সংবাদ

পুলিশের অভিযানে জালটাকা তৈরির প্রিন্টারসহ মা-ছেলে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২১ , ১১:১৩ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২০, ২০২১ , ১২:০১ অপরাহ্ণ

বরগুনার বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা ইউনিয়নের দক্ষিন গুদিকাটা গ্রাম থেকে ৩হাজার জালটাকা এবং জালটাকা তৈরির প্রিন্টারসহ মা ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে বামনা থানা পুলিশ।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন বামনা থানার অফিসার ইন চার্জ মো. বশিরুল আলম।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- পাথরঘাটা উপজেলার চরলাঠিমারা গ্রামের সৈয়দ সুমন হোসেনের স্ত্রী মোসা. মিনারা বেগম (৩৮) ও তার ছেলে মামুন (২৩)।

বামনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অসীম কুমার জানায়, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার দক্ষিন গুদিকাটা গ্রামের এমএমবি বিক্স-২ এর সামনে জনৈক চাঁন মিয়ার দোকানে একটি ১হাজার টাকার জাল নোট নিয়ে সৈয়দ মামুন নামে এক যুবক পন্য কিনতে এসেছেন এমন খবর পান তারা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে তল্লাশি করে আরো ৩টি একহাজার টাকার জাল নোট পায়। মামুনের দেওয়া তথ্য মতে তার বাড়িতে টাকা তৈরীর একটি প্রিন্টার রয়েছে জানতে পেরে বামনা থানা পুলিশ পাথরঘাটা পুলিশের সহায়তা নিয়ে পাথরঘাটা উপজেলার চরলাঠিমারা গ্রামে মামুনের বাড়িতে অভিযান চালায়। সেখানে মামুনের ঘরের পাশে তার চাচা আ. খালেকের ঘর থেকে একটি অত্যাধুনিক প্রিন্টার উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় সৈয়দ মামুনের চাচা আ. খালেক জানায়, মামুনের ঘটনার খবর পেয়ে তার মা মিনারা বেগম ওই প্রিন্টারটি তার ঘরে রেখে যায়। এটা কি মেশিন জানতে চাইলে মিনারা তাকে জানায় একজনের কাছে টাকা পেতো সেজন্য সে এই মেশিনটি তার কাছে রেখে গেছেন।

এদিকে গ্রেপ্তারকৃত মিনারা বেগম বলেন, আমার পূর্বের স্বামী আমার কাছে এই মেশিনটি তার এক বন্ধুকে নিয়ে রেখে গেছেন। এটা দিয়ে কি করে তাও আমি জানতাম না।

পাথরঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাশার এবং বামনা থানার অফিসার ইন চার্জ মো. বশিরুল আলম বলেন, জালটাকা ও জাল টাকা তৈরীর মেশিনসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা নিয়ে আগামীকাল জেল হাজতে পাঠানো হবে। এই জালটাকা তৈরীর উৎস ও এর সঙ্গে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা তা খুঁজে বের করা হবে।

রি-এটি/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়