রূপগঞ্জে সিটি গ্রুপের কারখানায় আগুন, ৪ শ্রমিক দগ্ধ

আগের সংবাদ

ছুটির দিনে কালোতে অপরূপ জাহ্নবী কাপুর

পরের সংবাদ

ইরানে বাড়ছে ‘সাদা বিয়ে’

প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২১ , ৯:২৫ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২০, ২০২১ , ৯:২৫ অপরাহ্ণ

চলতি শতকের শুরুর দিকে ইরানে বিয়ে না করেও একসঙ্গে থাকার কথা চিন্তাও করা যেত না। অথচ সেখানেই এখন কত মানুষ এ কাজ করছেন সে ব্যাপারে হিসাব রাখা মুশকিল হয়ে পড়েছে।

ইরানে বিয়ে না করে একসঙ্গে থাকাকে ‘সাদা বিয়ে’ বলে অভিহিত করা হয়। জানা গেছে, দেশটিতে এমন বিয়ের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। ২০১৪ সালে ‘জানান’ নামে একটি ম্যাগাজিনে ‘সামাজিক স্বীকৃতি বহির্ভূত বিয়ে’ বা সাদা বিয়ে নিয়ে একটি বিশেষ সংখ্যা বের করেছিল। ফলস্বরূপ দেশটির কট্টর সরকার ২০১৫ সালে সেই ম্যাগাজিন নিষিদ্ধ করে দেয়।

এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি ইরানের যুব উপমন্ত্রী মোহাম্মদ মেহদি তন্দগোইয়ান সম্প্রতি বলেন, অবিবাহিত যুগলদের সন্তানদের একসময় তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ দরকার হবে। তারাও কখনও না কখনও স্কুলে ভর্তি হবে। তাই এ ব্যাপারে নিষ্পত্তি করতে ব্যর্থ হওয়ার অর্থ হচ্ছে সামনে ভয়াবহ পরিণাম অপেক্ষা করছে।

পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, ইরানে বেশিরভাগ যুগলই তাড়াহুড়ো করে বিয়ে করতে চায় না। এর কারণ হচ্ছে দেশটির ক্রমবর্ধমান বিবাহবিচ্ছেদের হার।

ইরানের আইনে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের জন্য নারী ও পুরুষ উভয়ের প্রতি ৯৯টি বেত্রাঘাতের মতো শাস্তির বিধান বাস্তবায়ন করা হয়। সে কারণে যারা ‘সাদা বিয়ে’ করেছেন তারা বিষয়টি লুকিয়ে রাখেন। এমনকী ‘সাদা বিয়ে’ করেছেন এমন কেউ অত্যাচারিত হলেও তার আইনী সাহায্য পাওয়ার উপায় নেই। তাহলে ব্যাভিচারের দায়ে উভয়কেই দোষী সাব্যস্ত করা হয়।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়