নিউজিল্যান্ডের ঘাম ঝরিয়ে হারল স্কটল্যান্ড

আগের সংবাদ

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে ভারত

পরের সংবাদ

বিদেশে নারী পাচার চক্রের চারজন কারাগারে

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩, ২০২১ , ৭:৪০ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ৩, ২০২১ , ৭:৪২ অপরাহ্ণ

পেশা শুরু রিকশা চালানো দিয়ে। এরপর পণ্য ডেলিভারির জন্য বেসরকারি একটি কোম্পানীতে ভ্যানচালকের চাকরি পান কামরুল হাসান। কিন্তু অত্যন্ত ধূর্ত প্রকৃতির কামরুল খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই প্রথমে একটি ডান্স ক্লাবের সদস্য হন। পরে রাজধানীর একটি ডান্স ক্লাবের মালিক বনে যান।

এরপর বিনোদন জগতের রঙিন স্বপ্ন দেখিয়ে উঠতি বয়সী মেয়েদের সেখানে নাচ শেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে ভারতসহ বিভিন্ন দেশে পাচার করতেন মূলহোতা কামরুলসহ তার চক্রটি। এভাবে শতাধিক নারী পাচারের পর এক কিশোরীর বাবা বাড্ডা থানায় মামলা করলে অভিযান চালিয়ে কামরুলসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। বুধবার (৩ নভেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরআগে এই মামলায় দুই দিনের রিমান্ড শেষে আজ আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। আসামিরা হলেন- চক্রটির হোতা কামরুল হাসান ওরফে ডিজে কামরুল, আসাদুজ্জামান সেলিম, রিপন মোল্লা ও নাঈমুর রহমান। এরপর তাদেরকে কারাগারে আটক রাখতে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাড্ডা থানার পুলিশের উপপরিদর্শক (নিরস্ত্র) আল-ইমরান আহম্মেদ। রাষ্ট্রপক্ষও একই দাবি জানান। তবে এর বিরোধিতা করে আসামীপক্ষের আইনজীবী জামিন আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক আসামিদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

জানা যায়, গত ২৯ অক্টোবর বৌদ্ধ মন্দির এলাকা থেকে কামরুল হাসানকে আটক করে র‌্যাব-৪। তার দেয়া তথ্যেই পরে নিকুঞ্জ এলাকা থেকে সেলিম ও রিপনকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যে চুয়াডাঙ্গা থেকে শামীমকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়