জন্মদিনে আটলান্টায় মা ও মেয়ের সঙ্গে মৌসুমী

আগের সংবাদ

আগামী অধিবেশনে অর্থের দুটি বিল উঠছে

পরের সংবাদ

কাবুল হাসপাতালে আইএসের হামলায় তালেবান কমান্ডার নিহত

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩, ২০২১ , ৬:১০ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ৩, ২০২১ , ৬:১০ অপরাহ্ণ

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের সরদার দাউদ খান হাসপাতালে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটসের (আইএস) আত্মঘাতী বোমা ও বন্দুক হামলায় তালেবান সামরিক বাহিনীর কমান্ডার হামদুল্লাহ মোখলিসসহ নিহত হয়েছেন ১৯ জন এবং আহত হয়েছেন ৪৩ জন।

হাক্কানি নেটওয়ার্কের সদস্য ও বিশেষ বাহিনী বদরি সৈন্যদলের কর্মকর্তা মোখলিস গত ১৫ আগস্ট তালেবানের ক্ষমতা দখলের পর নিহত হওয়া সবচেয়ে সিনিয়র কর্মকর্তা। আইএসকে প্রতিরোধ করতে গিয়ে প্রাণ হারান তিনি। খবর এএফপি, এনডিটিভি ও ইন্ডিয়া টুডের।

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) প্রথমে সামরিক বাহিনী পরিচালিত হাসপাতালের মূল ফটকের সামনে আত্মঘাতী হামলা করে। এরপর সেই ভেঙে যাওয়া ফটকের সামনে থেকে বন্দুকধারীরা ভেতরে প্রবেশ করে এবং এলোপাথাড়ি গুলি শুরু করে। হামলায় নারী ও শিশু নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন হামলার ১৫ মিনিটের মধ্যে তালেবানরা জবাব দিয়েছে। জঙ্গিরা সাধারণ মানুষকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল। ক্ষয়ক্ষতি রোধ করা সম্ভব হয়েছে।

এ ছাড়া তালেবানের জনসংযোগ বিভাগের এক নেতা বলেন, আমরা যখনই জানতে পারলাম, সরদার দাউদ খান হাসপাতালে হামলা হয়েছে, সঙ্গে সঙ্গে মৌলভি হামদুল্লাহকে তা জানিয়েছি। হামলার সংবাদ পেয়ে নিষেধ করা সত্ত্বেও তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পরে আমরা জানতে পেরেছি হাসপাতালে সম্মুখ যুদ্ধে তিনি শহিদ হয়েছেন।

অন্য এক তালেবান কর্মকর্তা বলেন, অন্তত ছয় জন জঙ্গি এ হামলার সঙ্গে জড়িত। এদের মধ্যে দুজনকে আটক করা হয়েছে।

আফগানিস্তানের সবগুলো সামরিক হাসপাতালের মধ্যে সরদার দাউদ হাসপাতাল সবচেয়ে বড় হাসপাতাল। সে কারণে জঙ্গিরা এ হাসপাতালে হামলার পরিকল্পনা করে। ইতোমধ্যে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটস- খোরাসান (আইএস-কে) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে। এক বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানিয়েছে, আইএস-কে এর পাঁচটি দল মঙ্গলবারের এ হামলা করেছে।

এর আগে ৮ অক্টোবর আফগানিস্তানের কুন্দুজে ও ১৫ অক্টোবর কান্দাহারের দুটি শিয়া মসজিদে জুমার নামাজের সময় আত্মঘাতী হামলা চালায় আইএস-কে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়