ডিসেম্বরে পাল্টাপাল্টি সম্মেলন ডেকেছে গণফোরাম

আগের সংবাদ

বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে রোড শো উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

পরের সংবাদ

শিশুরাই গড়ে তুলবে আগামীর আলোকিত মানবিক বিশ্ব: স্পিকার

প্রকাশিত: অক্টোবর ৩০, ২০২১ , ৮:৪২ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০২১ , ৮:৪২ অপরাহ্ণ

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, পরমত সহিষ্ণুতা, সকলের সঙ্গে মিলে মিশে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান এবং দেশপ্রেমের মত মৌলিক মূল্যবোধ শিশুদের চিন্তা ও মননে গেঁথে দিলে তারাই গড়ে তুলবে আগামীর আলোকিত মানবিক বিশ্ব।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২১’ এর সমাপনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্পিকার বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সকল সুবিধা গ্রহণ করতে হলে শিশুদের ছোটবেলা হতেই দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। তিনি আরও বলেন, জাতিসংঘ ঘোষিত ‘শিশু অধিকার সনদ’ গৃহীত হবার ১৭ বছর আগে বাহাত্তরের সংবিধানে বঙ্গবন্ধু শিশুদের কথা অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন যার ২৮ অনুচ্ছেদে পিছিয়ে পড়া শিশুদের এগিয়ে নেবার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা বা আইন প্রনয়ণের বিষয় বিবৃত আছে।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য পাঠ করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান লাকী ইনাম।

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আয়োজিত এবারের ‘বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২১’ বিশেষভাবে গুরুত্ববহ। তাই স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনাদর্শ নিজেদের জীবনে প্রতিফলন ঘটানোর জন্য তিনি কোমলমতি শিশুদের প্রতি আহবান জানান।

তিনি আরও বলেন, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সঠিকভাবে জেনে শিশুদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে।

সবশেষে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী কোমলমতি শিশুদের পরিবেশনায় ‘বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২১’ এর সমাপনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

অনুষ্ঠানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর মহাপরিচালক, শিশু একাডেমীর কর্মকর্তাবৃন্দ, আমন্ত্রিত কোমলমতি শিশু ও তাদের অভিভাবকরা, সাংবাদিকগণ এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

রি-এনআরআর/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়