পাটুরিয়ায় উদ্ধার প্রায় সমাপ্ত, শাহ আমানত নিয়ে শঙ্কা

আগের সংবাদ

লজ্জা থেকে বাঁচল অস্ট্রেলিয়া

পরের সংবাদ

বিয়েতে মাংস কম দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রকাশিত: অক্টোবর ৩০, ২০২১ , ৯:৩৩ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০২১ , ৯:৩৪ অপরাহ্ণ

সাতকানিয়ায় একটি বিয়েতে খাবার টেবিলে মাংস কম দেওয়াকে কেন্দ্র করে বর-কণে পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। শনিবার (৩০ অক্টোবর) দুপুর দেড়টা থেকে তিনটা পর্যন্ত উপজেলার মৌলভীর দোকানের নিরিবিলি কমিউনিটি সেন্টারে এ মারামারির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছলে ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আসে। আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে নিরিবিলি কমিউনিটি সেন্টারে ছদাহা পূর্ব কাজীর পাড়া (খামারপাড়া) কালা মিয়ার ছেমে মোহাম্মদ শাহজাহানের সাথে নোয়াখালীর সুবর্ণচর চরওয়াবদা ৪ ওয়ার্ডের বাসিন্দা (বর্তমানে চন্দনাইশের হাছনদন্ডীতে থাকে) জসিম উদ্দিন ফারুক মেয়ে মুক্তা বেগমের বিয়ের খাবারের আয়োজন চলছিল। মেয়ের চাচা আলাউদ্দিন বলেন, বিয়েত বর পক্ষের ৩ শ লোককে খাবারের কথা থাকলেও দুপুর দেড়টা পর্যন্ত (বর) তাদের চারশো জনেরও বেশি খাওয়ানো হয়।

এ সময় খাবার টেবিলে বর পক্ষের এক ব্যক্তিকে তৃতীয় বার অতিরিক্ত গরুর মাংস এনে না দেওয়ায় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারামারি শুরু করে। ঘটনা থামাতে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তাদের কেউ মারধর করা হয়। পরে বর নিজে এসে মারামারিতে যোগ দেন। এতে স্থানীয়সহ উভয় পক্ষের অনেকেই আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে যাদের নাম পাওয়া গেছে তারা হলেন, কনের বাবা জসিম উদ্দিন ফারুক (৪০), কনের মা রাশেদা বেগম (৩৫), মামা বাবুল(৩০), বর মোহাম্মদ শাহজাহান (২৮) মানিক (২৮), মো. রফিক (৩০), স্থানীয় হুমায়ূন ২০ ছদাহা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোসাদ হোসাইন চৌধুরী বর পক্ষের বরাত দিয়ে জানান, বিয়েতে মামারির ঘটনা মাংস নিয়ে নই। এটা নাকি বিয়ে বানচালের জন্য তৃতীয় কোনো পক্ষ ঘটিয়েছেন। এতে বর পক্ষের দশ জনের মতো আহত হয়েছেন।

সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বলেন, বিয়েতে মাংস কম দেওয়ার ব্যাপারে অপ্রীতিকর ঘটনা জানার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত কেউ থানায় অভযোগ দেয়নি।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়