ভরাট দখলে বংশী এখন মরা গাঙ

আগের সংবাদ

শিশুরাই গড়ে তুলবে আগামীর আলোকিত মানবিক বিশ্ব: স্পিকার

পরের সংবাদ

ডিসেম্বরে পাল্টাপাল্টি সম্মেলন ডেকেছে গণফোরাম

প্রকাশিত: অক্টোবর ৩০, ২০২১ , ৮:৩১ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০২১ , ৮:৩১ অপরাহ্ণ

ড. কামাল হোসেনের প্রতিষ্ঠিত গণফোরামে সমঝোতা হয়নি। শনিবার দলের একটি বড় অংশের নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে আগামী ৩ ডিসেম্বর ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল করার কথা ঘোষণা করেছেন। আর কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন অংশটি পরদিন ৪ ডিসেম্বর বিশেষ কাউন্সিল করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) সকালে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটি মিলনায়তনে অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদের সভাপতিত্বে গণফোরামের (একাংশ) কেন্দ্রীয় কমিটির বর্ধিত সভা হয়। পরে দুপুর ১ টায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব সিনিয়র অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্র, সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৯৯৩ সালের ২৯ আগস্ট গণফোরাম প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই গণফোরাম দলের ভিতরে ও বাইরে বহুমুখী ষড়যন্ত্রের শিকার হয়। ২০১৯ সালের ২৬ এপ্রিল বিশেষ জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবার পর থেকেই কিছু উচ্চাভিলাষী, কুচক্রী মহল দলের সভাপতি ড. কামাল হোসেনকে সামনে রেখে দলের ভেতরে তাদের ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থের অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বারবার অনুরোধ করার পরও গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে ২ বছর কেন্দ্রীয় কমিটি কোনও সভা আহবান করেনি।

তিনি উল্লেখ করেন, ‘কার্যত দলের মধ্যে কোনও গণতন্ত্র নেই এবং গঠনতন্ত্রের কোনও কার্যকারিতা বা প্রয়োগ নেই। ড. কামাল হোসেনকে বারবার মৌখিক ও লিখিতভাবে অনুরোধ করার পরও তিনি দলের ঐক্য ও শৃঙ্খলা রাখার ব্যাপারে কোনও পদক্ষেপ নেননি। এমতাবস্থায় এ বছরের ২৪ আগস্ট ও ২৬ অক্টোবর দলকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য এবং দলকে ঐক্যবদ্ধ ও সুশৃঙ্খল রাখার জন্য ড. কামাল হোসেনকে চিঠি দেওয়া হয় কিন্তু তিনি এখনও কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি।’

সংবাদ সম্মেলনে সুব্রত চৌধুরী জানান, ‘আগামী ৩ ডিসেম্বর দলের ষষ্ঠ জাতীয় আয়োজন করা হয়েছে। বর্ধিত সভা শেষে গণফোরাম এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু বলেন, ‘আমরা দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ ও কার্যকর গণতন্ত্র চাই। আমরা তত্ত্বাবধায়ক সরকার অথবা সকল দলের মতামতের ভিত্তিতে সমঝোতার সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই।’

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জগলুল হায়দার আফ্রিক, মোহসীন রশিদ, চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক রতন ব্যানার্জী, ময়মনসিংহ গণফোরাম নেতা আবু রায়হান, সিলেট গণফোরাম নেতা আনসার খান, ফরিদপুর গণফোরাম নেতা বিশ্বজিৎ গাঙ্গুলী, কুমিল্লা গণফোরাম নেতা আব্দুস সাত্তার পাঠান, ঠাকুরগাঁও গণফোরাম নেতা রফিকুল ইসলাম, হবীগঞ্জ জেলা গণফোরাম নেতা শ্যামল কান্তি দাস, মৌলভীবাজার জেলা গণফোরাম নেতা বকশি ইকবাল, জয়পুরহাট গণফোরাম নেতা মামুনুর রশিদ মামুন।

অন্যদিকে, আগামী ৪ ডিসেম্বর বিশেষ কাউন্সিল ডেকেছে কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন গণফোরাম। বিশেষ এই সম্মেলন উপলক্ষে শনিবার পুরানা পল্টন কার্যালয়ে প্রস্তুতি কমিটির একটি বৈঠক হয়। সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি মোকাব্বির খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে বক্তব্য রাখেন, গণফোরামের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আ.ও.ম শফিক উল্লাহ, গণফোরাম নেতা মোশতাক আহমদ, হারুন তালুকদার, শাহ নুরুজ্জামান, শফিউর রহমান খান বাচ্চু, আব্দুর রাজ্জাক, একেএম শফিকুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, অধ্যক্ষ মো. ইয়াছিন, জহিরুল ইসলাম, মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, তৌফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

রি-আরজে/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়