সাভারে ভিক্ষুকের ভালবাসার নিদর্শন

আগের সংবাদ

শয়তানকে খুশি করে লটারি জেতার আশায় দুই বোনকে খুন!

পরের সংবাদ

লাইভ আপডেট

অসময়ে ফিরলেন মুশফিক

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৯, ২০২১ , ৬:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৯, ২০২১ , ৭:২২ অপরাহ্ণ

কাট করে চার মারলেন, মুশফিক তাতে সন্তুষ্ট হলেন না। রামপলকে স্কুপ করতে গিয়ে পুরোপুসি মিস করে গেছেন তিনি, হয়েছেন বোল্ড। লিটনের সঙ্গে জুটিটা জমছিল, অসময়ে ফিরলেন মুশফিক।

আগের বলে কাউ কর্নার দিয়ে ভালো একটা চার মেরেছিলেন সৌম্য। তবে আকিল হোসেইনের পরের বলে আগে থেকেই জায়গা বানাতে গেলেন। শেষ পর্যন্ত লিডিং-এজ হয়েছেন, থার্ডম্যানে সামনে ঝুঁকে ক্যাচ নিয়েছেন ক্রিস গেইল। সৌম্য করেছেন ১৩ বলে ১৭ রান। লিটনের সঙ্গে তাঁর জুটি ৩১ রানের।

১৪ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৯৫ রান।

দশম ওভারে এসেছেন ডোয়াইন ব্রাভো। চতুর্থ বলে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে ফুলটস বানিয়েছেন লিটন, কাভার দিয়ে মেরেছেন চার। পরের বলে সিঙ্গেল চুরি করতে গিয়ে রান-আউট হতে ধরেছিলেন লিটন, তবে রবি রামপল সরাসরি ভাঙতে পারেননি স্টাম্প। শেষ ১০ ওভারে বাংলাদেশের প্রয়োজন ৮৮ রান।

সিমের ওপর হাত ঘুরিয়ে বলের গতি কমিয়ে এনেছিলেন হোল্ডার, বলটা ওঠেওনি সেভাবে। তবে অন দি আপে শট খেলতে থাকা নাঈম এ বলেও ব্যাট চালিয়ে এটাকে ডেকে আনলেন স্টাম্পে। ১৯ বলে ১৭ রান করলেন নাঈম, পাওয়ারপ্লে-তে বাংলাদেশ হারাল দ্বিতীয় উইকেট। চারে এসেছেন সৌম্য সরকার। প্রথম ৬ ওভারে বাংলাদেশের রান ২৯।

মিডউইকেটে নাঈমের সহজ ক্যাচ ফেলেছেন উইন্ডিজ দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডার হেইডেন ওয়ালশ জুনিয়র। তবে আন্দ্রে রাসেলের পরের বলেই ক্যাচ তুলেছেন সাকিব আল হাসান। মিড অফে সহজ ক্যাচ নিতে একটুও নড়তে হয়নি হোল্ডারকে। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে প্রথমবার ওপেনিংয়ে এসে ১২ বলে ৯ রান করেই ফিরতে হলো সাকিবকে।

একটি করে চার মেরেছেন সাকিব ও নাঈম। তবে এরপর থেকে টাইমিং ঠিকঠাক হয়নি, অথবা বের করতে পারেননি গ্যাপ। আপাতত ইতিবাচক কিন্তু পাওয়ারপ্লেতে ধীরগতির শুরু বাংলাদেশের। রবি রামপল ও জেসন হোল্ডারই করেছেন প্রথম ৪ ওভার। ৩৬৭ ম্যাচ, ৪০৩ ইনিংস। লম্বা ক্যারিয়ারে আজই প্রথমবার ইনিংস ওপেন করতে এলেন সাকিব আল হাসান।

ওপেনিংয়ে ভুগছিলেন লিটন দাস। তবে আজ চোটের কারণে আগেই নুরুল হাসান ছিটকে যাওয়ায় উইকেটকিপিং করেছেন তিনি। নাঈমের সঙ্গে এসেছেন সাকিব। মোস্তাফিজের করা শেষ ওভারের প্রথম বলে ক্যাচ দিয়েছেন ডোয়াইন ব্রাভো। ডিপ কাভারে এবার ভুল করেননি সৌম্য।

পরের ২ বলে ২ ছয় মেরেছেন হোল্ডার। ব্রাভো আউট হওয়ার পরই আবারও নেমেছেন কাইরন পোলার্ড। ১৬ বলে ৮ রান করে উঠে গিয়েছিলেন তিনি। মোস্তাফিজের শেষ বলে পোলার্ড মেরেছেন ছয়। উইন্ডিজ থেমেছে ১৪২ রানে।

১৩তম ওভারে রাসেল যখন কোনো বল না খেলেই আউট হন, উইন্ডিজের স্কোর ছিল ৪ উইকেটে ৬২। তবে পুরানের পর হোল্ডারের ঝড়ে লড়াই করার মতো সংগ্রহ পেয়েছে তারা। বাংলাদেশ শেষদিকে চাপ ধরে রাখতে পারেনি, পিচ্ছিল ফিল্ডিং-ও ভুগিয়েছে তাদের।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়