সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হবে বঙ্গমাতার নামে

আগের সংবাদ

ই-কমার্সে গ্রাহকদের আটকা টাকা ফেরতে ব্যবস্থা হচ্ছে: টিপু মুনশি

পরের সংবাদ

বিচার না হলে অকাল মৃত্যু হবে অনেক জিসানের

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ৯:২২ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ৯:২২ অপরাহ্ণ

স্ত্রী মাহির মানসিক চাপে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন শেখ জিসান (২৫)। বিষয়টি পুলিশকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করলেও মামলা নেয়নি। উল্টো আমাদের দোষারোপ করার চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় যদি জিসানের স্ত্রীসহ দায়ীদের বিচার না হয়, তাহলে আরো অনেক জিসানের অকাল মৃত্যু ঘটবে। নিভে যাবে কোনো বংশের প্রদ্বীপ।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরই) সাগর-রুনি মিলনায়তে আবেগাপ্লুত কন্ঠে এসব কথা বলেন আত্মহত্যা করা জিসানের ফুফু ফারজানা শারমিন রুনা।

এসময় জিসানের চাচা শেখ মাইজউদ্দিন ও শেখ জামিল উদ্দিন, ফুফা সায়মন ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ফারজানা শারমিন রুনা বলেন, প্রেমের সম্পর্ক থেকে মাহিকে বিয়ে করেছিলেন শেখ জিসান। অল্প দিনের মধ্যেই বাবার বাড়িতে সমস্যার কথা জানিয়ে, জিসানকে ফাটের একাংশ বন্ধকি রেখে ঋণ নিতে বাধ্য করেন মাহি। এর কিছুদিন পর একইভাবে জিসানকে দিয়ে ঋণ করিয়ে বাবার বাড়িতে টাকা পাঠায় মাহি। পরে পরিকল্পিতভাবে জিসানের সঙ্গে ঝগড়া করে বাবার বাড়িতে চলে যায় সে। জিসান মাহিকে আনতে শশুরবাড়ি গেলে সেখানে জিসানকে মারধর করা হয়। মাহি আর সংসার করবেনা বলে জানায়। তখন জিসান ঋণ করে দেয়া টাকা ফেরত চাইলে সেটি দিতেও অস্বীকৃতি জানায় মাহি ও তার বাবা জিসানের শশুর সাজ্জাদ হোসেন। এতে মানসিক চাপে গত ১৪ অক্টোবর পুরান ঢাকার ওয়ারীর লালমোহন শাহ স্টেটের ১০৪ নম্বর নিজেদের বাড়িতে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে জিসান। মৃত্যুর সময় একটি চিরকুটে ও মোবাইলে নোটপ্যাডে সবকিছু লিখে রেখে যায় জিসান। যা কৌশলে সরিয়ে ফেলেছে মাহি।

ফারজানা শারমিন আরো বলেন, মাহিদের পরিবার টাকার লোভে পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। যদি মাহির বিচার না হয়, তাহলে সে আরো এ ধরণের ঘটনা ঘটাতে থাকবে। ফলে প্রাণ যাবে আরো অনেক জিসানের। জিসানের আত্মহত্যার প্ররোচনায় মাহি ও মাহির পরিবারের সদস্যদের বিচার নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন জিসানের ফুফু। এ ঘটনায় আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হবে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়