প্রফুল্লকুমার গুহের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

আগের সংবাদ

প্রশাসন ব্যর্থ, রাজনৈতিক দলের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে প্রশ্ন

পরের সংবাদ

কবি শামসুর রাহমানের ৯৩তম জন্মদিন আজ

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৩, ২০২১ , ৮:০৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৩, ২০২১ , ৮:০৯ পূর্বাহ্ণ

আজ ২৩ অক্টোবর বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের ৯৩তম জন্মবার্ষিকী। ১৯২৯ সালের এই দিনে তিনি ঢাকার মাহুতটুলিতে জন্মগ্রহণ করেন। এ উপলক্ষে আজ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

কবি শামসুর রাহমানের বাবা মুখলেসুর রহমান চৌধুরী, মা আমেনা বেগম। আধুনিক বাংলা কাব্যের অন্যতম প্রধান কবি শামসুর রাহমানের পড়াশোনায় হাতেখড়ি পোগোজ স্কুলে। ঢাকা নগরেই তার বেড়ে ওঠা। নাগরিক কষ্ট, সুখ-দুঃখ তার কবিতায় বিশেষভাবে উঠে এসেছে। জীবনের সত্য-সুন্দরকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন অনন্য। পাশাপাশি বাঙালির সব আন্দোলন-সংগ্রামের গৌরবদীপ্ত অধ্যায় ফিরে ফিরে এসেছে তার কবিতায়।

শামসুর রাহমান প্রেম, দ্রোহ ও বিশ্বজনীনতা নিয়ে কবিতা লিখেছেন। যা আজও সব বয়সের মানুষকে উজ্জীবিত করে। সর্বোপরি কবিতা রচনায় স্বাধীনতার কণ্ঠকে ধারণ করেছিলেন তিনি। তার সৃষ্টিশীলতার বিশালতায় বাংলা কবিতায় তাকে স্বাধীনতার কবি বলা হয়।

শামসুর রাহমানের প্রথম কবিতার বই ‘প্রথম গান দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে’ প্রকাশ হয় ১৯৬০ সালে। এরপর ষাটের দশকে প্রকাশিত বইগুলো হচ্ছে ‘রৌদ্র করোটিতে’, ‘বিধ্বস্ত নীলিমা’, ‘নিরালোকে বসতি’, ‘নিজ বাসভূমে’, ‘বন্দি শিবির থেকে’, ‘মাতাল ঋতিক’সহ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কবির ৬০টি কবিতার বই প্রকাশিত হয়। এছাড়া শিশুতোষ গ্রন্থ ১১টি, গল্পগ্রন্থ একটি, দুটি উপন্যাস-‘অক্টোপাস’ ও ‘অদ্ভুত আঁধার’, নাটক ও কবিতা সমগ্র, অনুবাদ গ্রন্থ ৯টি, নির্বাচিত কলাম, নির্বাচিত কবিতার চার খণ্ডসহ কবির বিভিন্ন বিষয়ে প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা শতাধিক।

পেশাগতভাবে কবি শামসুর রাহমান লেখালেখি ও সাংবাদিকতা করেছেন। ষাট দশকের মধ্যভাগে তিনি দৈনিক পাকিস্তান পত্রিকায় (স্বাধীনতার পর দৈনিক বাংলা) যোগ দেন। দৈনিক বাংলা, বাংলাদেশ টাইমস, সাপ্তাহিক বিচিত্রার সম্পাদক ছিলেন তিনি। এছাড়া কবি কয়েকটি সাহিত্য পত্রিকা সম্পাদনা করেন।

সাহিত্যে অবদানের জন্য একুশে পদক, বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার, আদমজী পুরস্কার, কলকাতা থেকে আনন্দ পুরস্কারসহ অসংখ্য পুরকার লাভ করেন। ২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

কবির জন্মদিনের আয়োজন : ৯৩তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে বাংলা একাডেমি আগামীকাল রবিবার বেলা ১১টায় একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে একক বক্তৃতা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এতে স্বাগত বক্তব্য দেবেন বাংলা একাডেমির সচিব এ এইচ এম লোকমান। মূল বক্তব্য উপস্থাপন করবেন বিশিষ্ট গবেষক ও কবি অধ্যাপক খালেদ হোসাইন। সভাপতিত্ব করবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা। এছাড়া আজ শনিবার সকালে কবির সমাধিতে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন পুষ্পমাল্য অর্পণ করবে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়