অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বোলার হয়ে উঠলেন বিরাট কোহলি!

আগের সংবাদ

অপশক্তি মোকাবেলায় জাবি ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্বলন

পরের সংবাদ

মাঝরাতে পায়ে টান লেগে ঘুম ভেঙে যায়- বড় কোনো বিপদ?

প্রকাশিত: অক্টোবর ২১, ২০২১ , ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২১, ২০২১ , ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ

অনেকের রাতে পায়ে টান লেগে যন্ত্রণার চোটে ঘুম ভেঙে যায়। খুবই অস্বস্তিকর এই যন্ত্রণা কয়েক সেকেন্ড ধরে চলতে পারে। আবার বেশ কয়েক মিনিট ধরেও চলতে পারে। এমনিতেই ঘুমের মধ্যে পায়ে টান লাগা অত্যন্ত স্বাভাবিক ঘটনা। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে এর প্রবণতাও বাড়ে। কোনও কোনও ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, পুরুষদের চেয়ে নারীদের মধ্যে পায়ে টান লাগার প্রবণতা বেশি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

পায়ে টান লাগার অনেক কারণ হতে পারে। সাধারণত এই নিয়ে খুব বেশি দুশ্চিন্তা করার প্রয়োজন নেই। পায়ে টান লাগলে এমনিতে সেই ব্যথা কমানোর কোনও ওষুধ বা ইঞ্জেকশন হয় না। বরফ লাগিয়ে, কিংবা উষ্ণ জলে পা ডুবিয়ে রেখে আরাম পেতে পারেন। হাল্কা মাসাজ করেও পায়ের তালু বা জঙ্ঘার পেশির যন্ত্রণা কমতে পারে। তবে পেশিতে টান লাগার ঘটনা এড়ানোর কিছু উপায় রয়েছে।

১. পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খান। দিনে অন্তত ৭ থেকে ৮ গ্লাস।

২. মদ্যপান এবং ক্যাফিন কম করুন।

৩. ঘুমোনোর সময়ে সতর্ক হন। পায়ের নীচে বালিশ রেখে পা উঁচুতে তুলে রাখতে পারেন।

৪. ঘুমোনোর আগে পায়ের পেশি সামান্য স্ট্রেচ করে নিন।

৫. শরীরচর্চার সময়ে পায়ের পেশির দিকে মন দিন।

সাধারণত শরীরে জলের অভাবে পেশিতে টান লাগে। শরীরে কিছু জরুরি পুষ্টিগুণ এবং ভিটামিনের অভাব হলেও টানের প্রবণতা বেড়ে যায়। টান লাগার যন্ত্রণা বেশ কিছু ক্ষণ থাকলেও বেশির ভাগ সময়ই কয়েক মিনিটের মধ্যে নিজে থেকেই মিলিয়ে যায়। তবে কিছু ক্ষেত্রে ঘন ঘন পায়ে টান লাগা বড় কোনও অসুখের উপসর্গও হতে পারে। যেমন-

১. রক্ত জমাট বাঁধা হৃদ্‌রোগের আশঙ্কা

২. লিভার সিরোসিস

৩. ডায়াবিটিস

৪. কিডনি বিকল হয়ে যাওয়া

৫. পার্কিনসন্‌স ডিজিজ

৬. ক্যানসার চিকিৎসায় কেমো থেরাপি নিলেও স্নায়ু বিকল হয়ে পায়ে টান ধরতে পারে

তাই পায়ে টান লেগে যদি অতিরিক্ত ব্যথা হয় বা চামড়ার রং বদলে যায়, তা হলে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়