হিন্দুসহ সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা জরুরি: অ্যামনেস্টি

আগের সংবাদ

মেয়র আতিকুলের বিরুদ্ধে মামলা নেওয়ার আবেদন খারিজ

পরের সংবাদ

শেরপুরে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৯, ২০২১ , ২:৪৪ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০২১ , ২:৪৪ অপরাহ্ণ

শেরপুরের শ্রীবরদীতে একটি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের নামে দেওয়া মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিবাদ সভা করেছেন। সোমবার (১৮ অক্টোবর) শ্রীবরদী উপজেলার সিঙ্গাবরুনা ইউনিয়নের মেঘাদল গ্রামের ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধা পরিবার মো. সুরুজ্জামানের বাড়িতে এ সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন সিঙ্গাবরুনা ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. নূর ইসলাম, মো. ফজলুল হক আব্দুল মজিদ নুরুল ইসলাম, মোফাজ্জল হোসেন, জয়নাল আবেদীন, নাসির উদ্দীন, আজিজুল হক, নুরুজ্জামান, আবুল কাশেম, আমেজ উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডারের সভাপতি কামরুজ্জামান যুবলীগ নেতা রাশেদুল হক, আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) সভাপতি সামছুল হক প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, কিছুদিন আগে মেঘাদল গ্রামের নুরুজ্জামানের নাতনীর বিয়ে হয় পাশের গ্রাম টেংরামারির বাসিন্দা মিজানুর রহমানের সাথে। পরে তাদের সাথে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। বিবাহবিচ্ছেদের পর মিজানুর রহমান তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর নামে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে আপত্তিকর ছবি পোস্ট করেন। এ ব্যাপারে মেয়ের মা শিউলী বেগম বাদী হয়ে বকশিগঞ্জ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলা দায়ের করার পর আসামী মিজানুর রহমান গ্রেপ্তার হন। হাজত থেকে জামিনে ছাড়া পেয়ে মিজানুর রহমান মামলা তুলে নিতে বাদীর পরিবারকে নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দেখিয়ে আসছেন।

বাদী শিউলি বেগমের অভিযোগ, মামলা প্রত্যাহার না করায় মিজানুর রহমান প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে তার মা আঞ্জু আরা বেগমের নামে আদালতে একটি চেক জালিয়াতির মিথ্যা প্রচারণা মামলা দায়ের করেছেন। শিউলি বেগম বলেন, তার বাবা সুরুজ্জামান একজন ইউপি সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা। মিজানুর রহমানের নামে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার না করায় মিথ্যা মামলার মাধ্যমে হয়রানি করছে।

সভায় বক্তারা মিজানুর রহমানের দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। সেই সঙ্গে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দেন তারা।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়