প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারল টাইগাররা

আগের সংবাদ

শুভ শক্তির বিজয় হোক

পরের সংবাদ

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ ধরার অপরাধে ৭৩ জনকে কারাদণ্ড

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৩, ২০২১ , ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৩, ২০২১ , ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

শরীয়তপুরে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে পদ্মা নদীতে ইলিশ ধরার অপরাধে ৭৩ জেলেকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) শরীয়তপুরের জাজিরা, নড়িয়া ও ভেদরগঞ্জ পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক ও জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৬৪ জনকে এক মাস ও ০৯ জনকে এক বছরের কারাদণ্ড দেন জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ভূঁইয়া, নড়িয়া উপজেলা প্রশাসন ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর আল নাফিস। পরে পুলিশ তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠায়।

জেলা মৎস্য কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এ নিয়ে ৯ দিনে মৎস্য বিভাগ, স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ ও র‌্যাব নদীতে ১০২টি যৌথ অভিযান চালিয়েছে। এ সময় ২৭টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ২৩৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও দুই লাখ ৪৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মোট মামলা হয়েছে ২৯৭টি। ষোল লাখ ৪২ হাজার ৮ শত মিটার মাছ ধরার জাল জব্দ করা হয়েছে। মোটা ৪৫৬ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করে বিভিন্ন এতিম খানায় বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া পাঁচটি বোট ও একটি ট্রলার আটক করা হয়েছে।

ইউএনও তানভীর আল নাসিফ বলেন, ইলিশের প্রজনন নিরাপদ করতে ৩ অক্টোবর দিবাগত রাত থেকে ২২ দিনের জন্য নদ-নদী ও সাগরে সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার। ভেদরগঞ্জ অঞ্চলে ইলিশের প্রজনন ক্ষেত্র বেশি। এ কারণে ভেদরগঞ্জ নদ-নদীর দিকে বাড়তি নজর দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও জেলেদের হামলার পর থেকে আরও কঠোর নিরাপত্তায় মধ্যে অভিযান পরিচালনা হচ্ছে। নদীতে মাছ ধরতে গেলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ভূঁইয়া জানান, পদ্মা নদীতে আমাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে জেলেরা মাছ শিকার করছেন। এমন তথ্য পাওয়ার পর আমরা উপজেলা প্রশাসন ৫৫ জন জেলেকে আটক করে, ৫১ জনকে জেল ও ৪ জনকে ৫ হাজার করে মোট ২০ হাজার টাকা জরিমান করেছি। মাছ ধরার জাল ধ্বংস করা হয়েছে।

রি-এসকে/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়