জিতলে বেঁচে থাকবে স্বপ্ন, হারলে বিদায়

আগের সংবাদ

দেশে কোটিপতির সংখ্যা লাখ ছুঁই ছুঁই: বাংলাদেশ ব্যাংক

পরের সংবাদ

বিসিসিআইকে একহাত নিলেন ইমরান খান

প্রকাশিত: অক্টোবর ১২, ২০২১ , ১০:২৪ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১২, ২০২১ , ১০:২৪ অপরাহ্ণ

রাজনৈতিক অস্থিরতা ও সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে পাকিস্তানে গিয়ে ক্রিকেট খেলতে অনিহা প্রকাশ করে ভারত, অস্ট্রেলিয়ার মতো দলগুলো। এমনকি সম্প্রতি ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডও সেখানে সফর বাতিল করেছে। এজন্য বেশ আক্ষেপ জানিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেই সঙ্গে তিনি মিডল ইস্টকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইকে একহাত নিলেন।

১৯৯২ সালে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে ভাঙাচোরা দল নিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান। সেই সময় ইমরান খানের নেতৃত্বগুণেই এমনটি সম্ভব হয়েছিল। বর্তমানে তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু চাইলেই কি ক্রিকেটকে ভুলে যেতে পারবেন? না ক্রিকেট মিশে আছে তার রক্তে। তাইতো, প্রধানমন্ত্রী হয়েও দেশের ক্রিকেটের খোঁজখবর ঠিকই রাখছেন ইমরান।

ক্রিকেটের তিন মোড়ল বলা হয়- ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াকে। তবে এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিত্তশালী ক্রিকেট বোর্ড ভারতেরই। মূলত তিনি এমন মন্তব্য করার কারণ সাম্প্রতিক সিরিজ বাতিলের ঘটনা। পাকিস্তান সফর করার কথা থাকলেও নিরাপত্তার অজুহাতে সেটি বাতিল করেছে ইংল্যান্ড।

মোড়ল ক্রিকেট বোর্ডগুলো নিজেদের ত্রাতা ভাবে, এমন মন্তব্য করে সাক্ষাৎকারে সাবেক পাক অধিনায়ক ইমরান খান বলেন, আমার মনে হয় ইংল্যান্ডের ওরা ভাবে, পাকিস্তানের মতো দেশগুলোর সঙ্গে খেলে ওরা আসলে উপকার করে, অনেক কৃপা করছে। এর পেছনে একটা কারণ অবশ্যই টাকা। ভারতের অনেক টাকা। ফলে বিশ্বক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ করে বিত্তশালী বিসিসিআই।

আমি বলতে চাইছি ওরা যাই বলে, সেভাবেই সব কিছু হয় আসলে। এমনকি বিত্তশালী হওয়াতে ভারতের সঙ্গে এমন আচরণ করার সাহস পায় না কোনো ক্রিকেট বোর্ড। আমাদের সঙ্গে যা হয়েছে, ভারতের সঙ্গে এটা করার সাহস কেউ করবে না। কারণ তারা ভালো করেই জানে ভারত অনেক বেশি অর্থের জোগানদাতা। ইংল্যান্ড এমনটা করে আসলে নিজেদেরই ছোট করছে।

রি-কেই/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়