প্রস্তুতি পরখে মুখোমুখি বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা

আগের সংবাদ

তারেকের উদ্দেশে নানক: লন্ডনে বসে লাদেন হয়েছেন

পরের সংবাদ

অস্কার ব্রুজন নেপাল বধের ছক কষছেন

প্রকাশিত: অক্টোবর ১১, ২০২১ , ৯:৫৭ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০২১ , ৯:৫৭ অপরাহ্ণ

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে বুধবার (১৩অক্টোবর) নেপালের বিপক্ষে খেলতে নামবে বাংলাদেশ। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে যেতে হলে নেপালের বিপক্ষে আগে জয় তুলে নিতে হবে। এরপর তাকিয়ে থাকতে হবে মালদ্বীপ ও ভারতের ম্যাচের দিকে।

বাংলাদেশ নেপালের বিপক্ষে বুধবার(১৩অক্টোবর) খেলতে নামবে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫টায়। অপরদিকে মালদ্বীপ ভারতের মোকাবিলা করবে রাত ১০টায়। দুটো ম্যাচই হবে মালদ্বীপের মালের জাতীয় ফুটবল স্টেডিয়ামে

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে এবার খেলছে মালদ্বীপ, নেপাল, ভারত শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কা ইতোমধ্যে আসর থেকে বিদায় নিয়েছে। গ্রুপপর্বে নিজেদের চারটি ম্যাচের মধ্যে চারটি খেলে তিনটি ম্যাচেই হেরে গেছে শ্রীলঙ্কা। একটি ম্যাচে করেছে ড্র। ফলে সবার আগে তাদের বিদায় নিশ্চিত হয়েছে। এবারের সাফে যেহেতু পাঁচটি দেশ খেলছে ফলে পয়েন্ট টেবিলের সেরা দুইয়ে থাকা দুটি দেশ ফাইনালে খেলবে।

বাংলাদেশ, নেপাল, ভারত ও মালদ্বীপ সবাই তিনটি করে ম্যাচ খেলেছে। কিন্তু এখনো কোনো দলই ফাইনালে জায়গা করে নিতে পারেনি। এ চারটি দেশের সবার এখনো ফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তিনটি করে ম্যাচ খেলার পর এখন পয়েন্ট টেবিলে সবার উপরে আছে স্বাগতিক মালদ্বীপ, দ্বিতীয়স্থানে নেপাল, তৃতীয়স্থানে ভারত আর চতুর্থস্থানে আছে বাংলাদেশ।

মালদ্বীপ তিন ম্যাচের মধ্যে দুটি ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে। হেরেছে একটি ম্যাচে। তাদের পয়েন্ট ছয়। নেপালও তিনটি ম্যাচ খেলে দুটি ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে। হেরেছে একটি ম্যাচে। তাদেরও পয়েন্ট ছয়। কিন্তু নেপালের চেয়ে মালদ্বীপ এগিয়ে আছে গোল কম হজম করার দিক দিয়ে। মালদ্বীপ তিনটি ম্যাচ খেলে গোল হজম করেছে মাত্র একটি। অপরদিকে গোল দিয়েছে তিনটি। নেপাল তিনটি ম্যাচ খেলে গোল দিয়েছে চারটি। কিন্তু তারা গোল হজম করেছে তিনটি।

অপরদিকে ভারত তিন ম্যাচ খেলে জয় তুলে নিয়েছে একটি ম্যাচে। ড্র করেছে দুটি ম্যাচে। তারা পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয়স্থানে আছে। আর বাংলাদেশ তিন ম্যাচ খেলে একটি ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে, একটি ম্যাচে ড্র করেছে আর একটি ম্যাচে হেরেছে। ফলে চার পয়েন্ট নিয়ে তারা চতুর্থস্থানে আছে। এখন বুধবার গ্রুপপর্বের শেষ দিনে এ চারটি দেশই খেলতে নামবে। ফলে সেদিন ফয়সালা হবে কোন দুটি দেশ খেলবে ফাইনালে। বর্তমানে সাফের দুই ফাইনালিস্ট নিয়ে তৈরি হয়েছে মজার ও জটিল সমীকরণ।

বাংলাদেশকে ফাইনালে যেতে হলে সবার আগে নেপালের বিপক্ষে জয়ই তুলে নিতে হবে। ড্র করলেও বাংলাদেশের কোনো কাজ হবে না। শুধু জয়ই প্রয়োজন। নেপালের বিপক্ষে জয় পেলে এখন চার পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থস্থানে থাকা বাংলাদেশের পয়েন্ট হবে সাত। আর এই জয় পেলে বাংলাদেশ উঠে আসবে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানে। তবে বাংলাদেশ যদি নেপালের বিপক্ষে হেরে যায় তাহলে তখন নেপাল ৯ পয়েন্ট নিয়ে উঠে আসবে শীর্ষে। এমনকি বাংলাদেশের বিপক্ষে ড্র করলেও তারা উঠে আসবে শীর্ষস্থানে।

এরপর বাংলাদেশ-নেপাল ম্যাচে যে জয় পাবে তাকে তাকিয়ে থাকতে হবে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খেলতে নামা মালদ্বীপ ও ভারতের ম্যাচের দিকে। মালদ্বীপ যদি ভারতের বিপক্ষে হেরে যায় তাহলে মালদ্বীপের বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাবে। কারণ তখন তাদের পয়েন্ট থাকবে ছয়ই। অপরদিকে ভারত জয় পেলে তাদের পয়েন্ট হবে আট। মালদ্বীপকে হারিয়ে দিতে পারলে ভারত যেমন ফাইনালে যাবে সঙ্গে তারা ফাইনালে নিয়ে যাবে বাংলাদেশ অথবা নেপালকে। কিন্তু ভারত যদি হেরে যায় তখন সরাসরি ফাইনালে যাবে মালদ্বীপ। আর ওই দিক থেকে ফাইনালে যাবে বাংলাদেশ-নেপাল ম্যাচের জয়ী দল। এখন যদি বাংলাদেশের বিপক্ষে নেপাল ড্র করে। আবার মালদ্বীপ যদি ভারতের বিপক্ষে ড্র করে তাহলে ফাইনালে যাবে নেপাল ও মালদ্বীপ। কারণ তারাই বর্তমানে পয়েন্ট টেবিলের প্রথম ও দ্বিতীয়স্থানে আছে।

এদিকে নেপালের বিপক্ষে ম্যাচটিকে সামনে রেখে গত দুই দিন ধরে কঠোর অনুশীলন করে যাচ্ছে বাংলাদেশ। পরশুদিন নেপালের বিপক্ষে কেমন দল সাজানো হবে সে কৌশল ঠিক করা হয়। সেদিনও অনুশীলনে নামেন লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। গতকাল বিকালে ফের দেড় ঘণ্টার অনুশীলন করেন জামালরা। বাংলাদেশ সর্বশেষবার সাফের ফাইনালে খেলে ২০০৫ সালে। এরপর আর কখনো শিরোপার লড়াইয়ে ম্যাচে খেলার সৌভাগ্য হয়নি। এবার বাংলাদেশ সাফ মিশন শুরু করে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতকে রুখে দিয়ে ফাইনালের আশা আরো বাড়ায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। কিন্তু নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে মালদ্বীপের বিপক্ষে হেরে যায় তারা। যদি মালদ্বীপের বিপক্ষে বাংলাদেশ জয় তুলে নিতে পারতো তাহলে ফাইনালের পথে সবার চেয়ে এগিয়ে থাকত জামালরা। কিন্তু ম্যাচটিতে হেরে যাওয়ায় এখন সমীকরণ জটিল হয়ে গেছে। তবে বাংলাদেশের ফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা শেষ হয়নি। এখন দেখার বিষয় বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত ফাইনালে জায়গা করে নিয়ে শিরোপার আক্ষেপ ঘুচাতে পারে কি না।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়