পরিবার পরিকল্পনার সাবেক পরিচালকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

আগের সংবাদ

চামড়া শিল্পখাতে সুইস উদ্যোক্তাদের আগ্রহ

পরের সংবাদ

ইনার হুইল ক্লাব অব দিলখুশার কর্মশালায় বক্তারা

সচেতনতার মাধ্যমে স্তনক্যান্সারের ঝুঁকি মোকাবিলা সম্ভব

প্রকাশিত: অক্টোবর ১০, ২০২১ , ৮:২৩ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১০, ২০২১ , ৮:২৭ অপরাহ্ণ

দেশের প্রতিটি নারী পুরুষকে সচেতন করতে পারলে স্তন ক্যান্সোরের ঝুঁকি মোকাবিলা সম্ভব। সারা বিশ্বে নারীদের জন্য স্তন ক্যান্সার ঝুঁকির বিষয় হলেও সচেতন থাকলে তা থেকে মিলবে মুক্তি।

শনিবার (৯ অক্টোবর) রাজধানীর এক রেস্টুরেন্টে ব্রেস্ট ক্যান্সারে নিয়ে আয়োজিত এক সচেতনতামূলক কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন। বিশ্বব্যাপী অক্টোবর মাস ‘স্তন ক্যান্সার’ সচেতনতার মাস হিসেবে পালিত হয়। সে লক্ষ্যে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

আন্তর্জাতিক নারী সংগঠন ইনার হুইল ক্লাব অব দিলখুশার উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানে ব্রেস্ট ক্যান্সারের কারণে মৃত্যুর হার কমানো ও দেশে সচেতনতা বৃদ্ধির ওপরে গুরুত্ব দেওয়া হয়। সহযোগিতায় ছিল আন্তর্জাতিক সেবামূলক সংগঠন রোটারী ক্লাব অব ঢাকা স্টার্স এবং ইনার হুইল ক্লাব অব ঢাকা প্যারাডাইজ, ক্যামেলিয়া ঢাকা, ঢাকা ওল্ড টাউন। ইনার হুইল ক্লাব অব দিলখুশার প্রেসিডেন্ট সাহানা মালেরে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইনার হুইল ডিস্ট্রিক্ট ৩৪৫ এর চেয়ারম্যান, রোটারি অব ঢাকা স্টার্স এর প্রেসিডেন্ট জাহিরুল আলম, ক্যান্সার রোগী ও সজ্জন সমাজের ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মোশতাক হায়দার এবং ডা. জেবুন্নেসা মরিয়ম।

আলোচনায় ডা. মরিয়ম, ব্রেস্ট ক্যান্সারের কারণ ও এর প্রতিকারের নানাদিক তুলে ধরেন। তিনি বলেন, প্রতি বছর এই রোগ বহু মহিলার প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে। প্রতিকারের পাশাপাশি এই রোগ নির্মূলে নিয়েও তিনি বিশদ আলোচনা করেন।

রোটারী ক্লাব অব ঢাকা স্টার্সের প্রেসিডেন্ট জাহিরুল আলম বলেন, সারা বিশ্বে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ছে। আমাদের দেশে নারী পুরুষকে আরও সচেতন করা যায় সে পদক্ষেপ নিতে হবে। দ্রুত নিরাময়ের সহজ উপায় মানুষের কাছে পৌছে দিতে হবে। শুধুমাত্র সচেতন হলেই এই রোগের ভয়াবহতা থেকে প্রতিকার সম্ভব। ইনার হুইল ক্লাব অব দিলখুশার সাথে যৌথভাবে এই ধরনের সচেতনায় অংশ গ্রহণ করতে পেরে তিনি আনন্দিত। সরকারের একার পক্ষে সব কাজ করা সম্ভব নয়। সেবামূলক সংস্থাগুলো একযোগে কাজ করলে স্তন ক্যান্সারের মতো ব্যাধিকেও প্রতিরোধ করা সম্ভব বলে তিনি মনে করেন। আগামীতে তার ক্লাব এ ধরনের কাজে সার্বিক সহযোগিতা দেবে বলে তিনি জানান।

চেয়ারম্যান বলেন, প্রতিবীর অধিকাংশ মানুষ স্তন ক্যান্সার সহ অন্যান্য দুরারোগ্য ব্যাধি নিয়ে চিন্তিত। তাই সমাজের সকলের দায়িত্ব নিজ নিজ ক্ষেত্র থেকে মানুষকে সচেতন করা। ইনার হুইল ক্লাব অব ঢাকা এবং রোটারী সমাজে স্বাস্থ্য সচেতনতায় বিভিন্নমুখী কাজ করে থাকে। কিছু ব্যাধির ক্ষেত্রে চিকিৎসার পূর্বে প্রতিরোধ শ্রেয়। তাহলেই সেই ব্যাধি থেকে মুক্ত থাকা যায়। ব্রেস্ট ক্যান্সার তেমনি এক ব্যাধি। দিলখুশা এবং ঢাকা স্টার্স এর এই যৌথ আয়োজনকে তিনি সাধুবাদ জানান এবং এ ধরনের সচেতনতামূলক কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ জানান।

আলোচনা শেষে র‌্যালি এবং ৭ জন ব্রেস্ট ক্যান্সারের রোগীর ক্যামোথেরাপি চিকিৎসার জন্য আর্থিক অনুদান ও প্রয়োজনীয় ওষুধ প্রদান করা হয়। বিভিন্ন পেশা ও সংগঠনের সদস্যদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানটি অর্থবহ হয়ে ওঠে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়