স্তন ক্যান্সার সচেতনতা দিবস: প্রতি আটজনে একজন নারী ঝুঁকিতে

আগের সংবাদ

থামেনি রিজেন্সি হোটেলের অসামাজিক কার্যকলাপ

পরের সংবাদ

কাবুল পতনের পর দোহায় প্রথম বৈঠক করল যুক্তরাষ্ট্র-তালেবান

প্রকাশিত: অক্টোবর ১০, ২০২১ , ৮:৫৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১০, ২০২১ , ৮:৫৬ পূর্বাহ্ণ

গত ৩১ আগস্ট আফগানিস্তান থেকে সর্বশেষ মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের প্রথমবারের মতো তালেবানের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে যুক্তরাষ্ট্র। শনিবার (৯ অক্টোবর) কাতারের দোহায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। খবর রয়টার্স ও আল জাজিরার

বৈঠক প্রসঙ্গে তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি বলেছেন, দুই পক্ষই ২৯ ফেব্রুয়ারির চুক্তি বহাল রাখতে সম্মত হয়েছে।

২০২০ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি কাতারের দোহায় যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ দূত জালমায় খলিলজাদ ও তালেবানের উপ-প্রধানমন্ত্রী মোল্লা বারাদার এক যুদ্ধবিরতির চুক্তি স্বাক্ষর করেন। এ চুক্তিতে ১৪ মাসের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সব সৈন্য প্রত্যাহারের অঙ্গীকার করা হয়। কিন্তু চলতি বছর জো বাইডেন ঘোষণা দেন, ১১ সেপ্টেম্বর নয় ৩১ আগস্টের মধ্যেই আফগানিস্তান থেকে সব সৈন্য যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাবে।

একই সঙ্গে ওই চুক্তিতে তালেবান প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলো তারা আল-কায়েদাকে তাদের নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে বসে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের নিরাপত্তা ক্ষুণ্ন করার মতো কোনো কার্যক্রম চালাতে দেবে না।

তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুত্তাকি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদল করোনা টিকা ও মানবিক সহায়তা পৌঁছতে সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

কূটনৈতিক সম্পর্কের ব্যাপারে তালেবান সরকারের এ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সশস্ত্র সংগঠনটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী। তবে এক দেশ অন্য দেশের অভ্যন্তরীন ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে পারবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি। তবে কাতারের দোহায় বৈঠক শুরু হওয়ার আগে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র বলেছিলেন, তালেবান যেন নারীদের অধিকারকে সম্মান করে। সব পক্ষ নিয়ে যেন সরকার গঠন করে এবং মানবিক ত্রাণ সংস্থাগুলোকে কাজ করতে দেয়- সেই চাপ প্রয়োগের উদ্দেশ্যে এই বৈঠক করা হচ্ছে।

জানানো হয়েছে, দোহায় তালেবান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বৈঠক রোববারও চলবে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়