পরীক্ষার ১৮ বছর পর স্বপ্ন পূরণ হলো সুমনার

আগের সংবাদ

অবশেষে হারের দেখা পেল জামালরা

পরের সংবাদ

নিবেদিত প্রাণ তৃণমূলই আওয়ামী লীগের প্রাণশক্তি: হুইপ স্বপন

প্রকাশিত: অক্টোবর ৭, ২০২১ , ১১:৪৩ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৭, ২০২১ , ১১:৪৩ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেছেন, বড় বড় নেতাদের স্বাগতম জানানোর জন্য ঢাউস ঢাউস গেট, বিলবোর্ড নির্মাণ এবং মোটর শো-ডাউন করা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী ও গণমুখী চরিত্র ও চিরায়ত সংস্কৃতির সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এই অপসংস্কৃতি গণতন্ত্র বিরোধী দানব স্বৈরাচারদের সৃষ্টি করা।

গণমানুষের প্রিয় দলের কতিপয় সদস্য এই অপসংস্কৃতি আওয়ামী লীগে আত্মস্থ করবার চেষ্টা করছেন। এই বাহুল্য বাহারি কর্মকান্ড তৃণমূলের গরীব কর্মী এবং জনগণ পছন্দ করেন না। এই অপসংস্কৃতি আওয়ামী লীগের সংগ্রামী ঐতিহ্য, গণমুখী সংস্কৃতি ও অবিনাশী আদর্শের পরিপূর্ণ বিরোধী।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ কাউন্সিল অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

হুইপ স্বপন বলেন, আওয়ামী লীগ উচ্চবিত্ত নেতা নির্ভর দল নয়, নিবেদিত প্রাণ তৃণমূলই আওয়ামী লীগের প্রাণশক্তি। নেতাদের মনোতুষ্টির জন্য বাহুল্য খরচ না করে সেই অর্থ অসহায় তৃণমূলের পেছনে ব্যয় করুন। নেতাদের দেবতার আসনে না বসিয়ে তৃণমূলকে ভাইয়ের আসনে বসান। একটু ভালবাসা, সম্মান ও মর্যাদা দিন, দল অনেক উপকৃত হবে, দেশ এগিয়ে যাবে। যে নেতা তৃণমূল ও জনগণকে যত সম্মান দেবেন, সেই নেতার জনপ্রিয়তা তত বেশি বাড়বে এবং টেকসই হবে। দেশের টেকসই উন্নয়নে জন্য যেমন আওয়ামী লীগ অপরিহার্য, তেমনি নেতার টেকসই জনপ্রিয়তার জন্য আওয়ামী লীগের তৃণমূলের প্রতি মমত্ববোধ অপরিহার্য।

মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিশেষ কাউন্সিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, স্থানীয় সংসদ সদস্য নুরুল আমিন রুহুল, জেলা সাধারন সম্পাদক আবু নইম পাটোয়ারী দুলাল, কেন্দ্রীয় নেতা নির্মল গোস্বামী, চাঁদপুর পৌর মেয়র এডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল, উপজেলা সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান বিএইচএম কবির আহমেদ, মতলব দক্ষিণ পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন লিটন প্রমুখ।

প্রথম অধিবেশন শেষে সভাপতির শূণ্য পদে কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটে মো. লিয়াকত হোসেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। উল্লেখ্য যে, গত বছর অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর সভাপতি মৃত্যুবরণ করায় এক সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ছিল। বিশেষ কাউন্সিলে সভাপতির শূন্য পদে নির্বাচন করা হয়।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়