নিউজ ফ্ল্যাশ

আগের সংবাদ

কক্সবাজার থেকে ঢাকায় ফেরার পথে উদ্ধার নিখোঁজ তিন শিক্ষার্থী

পরের সংবাদ

সুনামগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণে একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশিত: অক্টোবর ৬, ২০২১ , ৮:২৪ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৬, ২০২১ , ৮:২৫ অপরাহ্ণ

এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক বাবুলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে এই রায় দেন সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন। একই সঙ্গে রায়ে এক লক্ষ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে, যা ভিকটিমকে ক্ষতিপূরণ হিসাবে দেয়া হবে।

সাজাপ্রাপ্ত ওই আসামীর পুরো নাম বাবুল মিয়া (২০)। সে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কাইয়ারগাঁও গ্রামের মৃত. দেওয়ান আলীর ছেলে। জানা গেছে, ২০০২ সালের ১ আগস্ট রাত আনুমানিক ১২টায় বাবুল মিয়া (২০) ভিকটিমের ঘরে প্রবেশ করে ধর্ষণ করে ধর্ষণ করে। সে সময় ভিকটিমের বয়স ছিলো ১১ বছর এবং সে কাইয়াগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। ভিকটিমের চিৎকারে তার অভিভাবকরা ঘুম থেকে উঠে আসামিকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। পরে ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ উপযুক্ত বিচারের আশ্বাস দিয়ে আসামীকে নিয়ে যান। কিন্তু বিচার না পেয়ে ভিকটিমের পিতা থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ ২০০২ সালের ৩ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ মোট আট জন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করে। পরবর্তীতে সাক্ষ্য প্রমাণাদি পর্যালোচনা করে আদালত বাবুল মিয়াকে সাজা প্রদান করেন। রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাড. নান্টু রায় এবং আসামীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাড. আব্দুল কাদির।

আর- এসআরএ / ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়