শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে জাবি খুলছে ১১ অক্টোবর

আগের সংবাদ

আরও ২৫ লক্ষাধিক ফাইজার টিকা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

পরের সংবাদ

সাকিব ইস্যুতে প্রশ্নবিদ্ধ ম্যাককালাম

প্রকাশিত: অক্টোবর ২, ২০২১ , ১০:০৭ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২, ২০২১ , ১০:০৭ অপরাহ্ণ

সাকিব আল হাসান গত ১৩ সেপ্টেম্বর আইপিএল খেলার উদ্দেশে দেশ ছাড়ে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে টুর্নামেন্টের বাকি অংশে কলকাতা নাইট রাইডার্স মাঠে নামে গত ২০ সেপ্টেম্বর। একে একে দলটি খেলে ৫টি ম্যাচ। কিন্তু সবগুলো ম্যাচেই সাকিবকে থাকতে হয় একাদশের বাইরে। এখন পর্যন্ত কলকাতা ১২টি ম্যাচ খেললেও সাকিব কলকাতার জার্সি গায়ে জড়ানোর সুযোগ পেয়েছে মাত্র তিন ম্যাচে। কলকাতা যে খুব ভালো অবস্থানে আছে তাও কিন্তু নয়। অবশেষে সাকিবের একাদশে উপেক্ষিত হওয়া নিয়ে মুখ খুলেছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া। তিনি তার এক টুইটে আক্ষেপ প্রকাশ করে লিখেছেন ‘সাকিব যদি কিউই হতো!’ তার এই স্বল্প বাক্যে রয়েছে অনেকগুলো ইঙ্গিত। কলকাতার কোচ নিউজিল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। দলটির একাদশে সাকিবের সুযোগ না হলে, খেলার সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন ব্ল্যাক ক্যাপসরা। ফলে কলকাতার কোচকে খোঁচা দিতেই ভারতের ক্রিকেট বিশ্লেষকের এমন টুইট বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাছাড়া আকাশ মনে করছেন সাকিবকে মরগানের জায়গা খেলানো উচিত। টাইগার অলরাউন্ডারকে দলের অধিনায়ক করতে তিনি পরামর্শ দিয়েছেন।

আইপিএলে কলকাতার ম্যাচ বাকি আছে আর মাত্র ২টি। তবে পয়েন্ট টেবিলে দলটির অবস্থান খুব একটা ভালো অবস্থানে নেই। প্লে-অফ নিশ্চিত করতে তাদের জয় পেতে হবে পরের দুই ম্যাচই। শেষ ম্যাচটিতে দুবাইয়ে কলকাতা ৭ উইকেটে ১৬৫ রান তুলেও পাঞ্জাবের কাছে হারে ৫ উইকেটে। হার তো ম্যাচেরই অংশ, কিন্তু সে হারে একাদশ গড়া নিয়ে প্রশ্ন উঠলে আলোচনা হবেই। নিউজিল্যান্ডের পেসার লকি ফার্গুসনকে বসিয়ে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান টিম সেইফার্টকে ডাকা হয় একাদশে। অর্থাৎ একজন পেসারের বদলে ব্যাটসম্যান দুজনই কিউই। এদিকে ম্যাচের ফল কলকাতার পক্ষে যায়নি। ম্যাককালামও তাই তোপ এড়াতে পারেননি। পাঞ্জাবের রান তাড়ার সময় কলকাতার বোলার-সংকটে পড়াটা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এবার আইপিএলে অভিষিক্ত কলকাতা ওপেনার ভেঙ্কটেশ আইয়ারকে ২.৩ ওভার বল করতে হয়েছে। টিম সাউদি, শিবম মাভি, বরুণ চক্রবর্তী ও সুনীল নারিন কলকাতার নিয়মিত বোলার।

এ চার বোলার মিলে ১৬ ওভার করলেও বাকি ৪ ওভার করানো নিয়ে বোলার সংকটে পড়েন মরগান। আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর প্রতিনিধিত্ব করা ব্যাটসম্যান অভিনব মুকুন্দ আকাশ চোপড়ার টুইটের মন্তব্যে ব্যাখ্যায় বলেন, সাকিব খেললে প্রথম ৭ ব্যাটসম্যানের মধ্যে ৫ জনই হতো বাঁ-হাতি। ত্রিপাঠি তিনে যেহেতু খুব ভালো করছে, দুর্ভাগ্যজনকভাবে সাকিবকে এর নিচে তো আর খেলানো যায় না। এদিক ভেবে দেখেছেন? মুকুন্দের মন্তব্যের জবাব আকাশ চোপড়া বলেন, আমার কথা হলো লকির জায়গায় একজন ব্যাটসম্যান খেলানো যায় না। ৪ ওভার বোলিংয়ের সুযোগ তো রাখতে হবে। ম্যাচ চলাকালে এখন আইয়ার ও নীতিশকে ৪ ওভার ভাগ করে নিতে হবে। কোনো বোলারই তো বিশ্রাম পাচ্ছে না। সাকিবের জায়গায় কলকাতা দলে খেলে যাচ্ছেন সুনীল নারিন। এই ক্যারিবীয় ক্রিকেটার অবশ্য দলের হয়ে পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন। এর আগে দিল্লি ক্যাপিট্যালসের বিপক্ষে ম্যাচে সাকিবকে না খেলানোর কারণ ব্যাখ্যায় কলকাতার সহকারী কোচ অভিষেক নায়ার বলেছিলেন, শারজার মাঠ ছোট। অধিনায়ক ভেবেছেন, তিন স্পিনার খেলানো কঠিন হয়ে উঠতে পারে।

পেসের কথা ভেবেই সাউদিকে নেয়া হয়েছে। সাকিবের ব্যাটিং সামর্থ্য ‘প্রমাণিত’ হলেও বোলিংয়ের কারণেই সাউদিকে এগিয়ে রেখে এই কিউই পেসারকে খেলানোর ব্যাখ্যা দেন নায়ার, ‘এমন কন্ডিশনে কেমন খেলতে পারে, সেটার প্রমাণ সাকিব আগেও রেখেছে। তবে আমরা অতিরিক্ত একজন পেসার খেলাতে চেয়েছি, যে পাওয়ার প্লেতে বোলিং করতে পারে।’ কাল নারিন ও সাউদি কলকাতার হয়ে খেলেছেন। কিন্তু একজন পেসারকে বসিয়ে ব্যাটসম্যান খেলিয়ে বোলিংয়ের সময় বিশেষজ্ঞ একজন বোলারের সংকটে ভুগেছে কলকাতা। তাহলে সাকিবকে কেন দলে নেয়া হলো না এ প্রশ্নের উত্তরে কলকাতার প্রধান কোচ ম্যাককালাম বলেন, ‘সাকিবকে তো খেলানো যেতই। আমাদের স্কোয়াডে অনেক বিকল্প আছে।

কোচ হিসেবে সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় মাঝেমধ্যে নিজের মনের ওপর আস্থা রাখতে হয়। টিম সেইফার্ট সিপিএলে মিডল অর্ডারে দারুণ করেছে। আমরা ভেবেছি, মিডল অর্ডার আরো শক্তিশালী করতে হবে।’ সাকিবকে খেলানো প্রসঙ্গে ম্যাককালাম জানালেন, সাকিব ভাবনায় আছেন। সেটি অবশ্যই অলরাউন্ডার হিসেবে তার দক্ষতার জন্যই, ‘দল নির্বাচনের কথা উঠলে সাকিব সব সময়ই আলোচনায় থাকে। সেটি তার দক্ষতার জন্য বাঁ-হাতি স্পিন ও ব্যাটিং। সেরা তিনে ব্যাট করার দাবি রাখে সে। কিন্তু তার অর্থ এই নয়, সে নিচে কোথাও ব্যাট করতে পারবে না। তাই আমি নিশ্চিত, পরেরবার দল নির্বাচনে সে আলোচনায় আসবেই।’

অন্যদিকে সাকিবের জায়গায় নারিন ভালো খেললেও, মরগানের পারফরম্যান্স ছিল হতহাশাজনক। অধিনায়ক বলেই তিনি সব ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন এমন অভিযোগ ক্রিকেট বিশ্লেষকদের। এমতাবস্থায় ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান আকাশ চোপড়া মনে করেন, মরগ্যানের জায়গায় সাকিবকে নেয়া উচিত কলকাতার। শুধু তাই নয়, সাকিবকে সরাসরি অধিনায়ক করেও দেখতে পারে কলকাতা, এমনটাই মনে করেন আকাশ। টুইটারে আকাশ লিখেছেন, ‘হতাশাময় সময়। কলকাতা নাইট রাইডার্স কি বাকি ম্যাচগুলোর জন্য সাকিবকে অধিনায়ক করে দেখতে পারে? মরগ্যানের বিরুদ্ধে কিছু নয়, কিন্তু যদি (তার ব্যাট থেকে) রান আসতো, তা আসছে না। সেরা খেলোয়াড়দেরও এমন হতেই পারে। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি কয়েক ওভার বোলিংও দিতে পারবে সাকিব।’

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়