প্রবাসী কর্মীদের করোনা টেস্টের ফি দেবে সরকার

আগের সংবাদ

বোয়ালমারীতে উঠানে জমা বৃষ্টির পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

পরের সংবাদ

ভারত বধের ছক কষছেন লঙ্কা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অস্কার

প্রকাশিত: অক্টোবর ২, ২০২১ , ৯:৩২ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২, ২০২১ , ৯:৩২ অপরাহ্ণ

এক মাস আগেও বসুন্ধরা কিংসের কোচের দায়িত্ব পালনকালে অস্কার ব্রুজন কখনো চিন্তাও করেননি তিনি বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব পালন করবেন। কিন্তু কখন যে কি হয়! তা কেউ বলতে পারে না। ব্রুজনের ক্ষেত্রেও হয়েছে এমনটি। হঠাৎ করেই বাংলাদেশ দলের কোচের দায়িত্ব পান তিনি।

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য জামালদের দেখাশোনা করার দায়িত্ব তার কাঁধে দেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। আর বাংলাদেশের কোচ হিসেবে তিনি মিশন শুরু করেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ম্যাচের মাধ্যমে। এটি ছিল তার জন্য একটি পরীক্ষা। আর পরীক্ষাতে পাস করেছেন তিনি। কারণ জামাল-তপুরা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় পেয়েছে। এখন ব্রুজনের সামনে দ্বিতীয় পরীক্ষা ভারত।

এই পরীক্ষাটি তার জন্য সবচেয়ে কঠিন। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে জয় দিয়ে উড়ন্ত সূচনা করেছে বাংলাদেশ। এ টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিন ফুটবলপ্রেমীদের টানটান উত্তেজনায় ঠাঁসা একটি ম্যাচ উপহার দিয়েছে জামাল ভূঁইয়া-তপু বর্মনরা। অস্কার ব্রুজনের অধীনে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই তারা শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে ১-০ গোলে। এবার ভারত বধের ছক কষছেন জামাল-তপুরা। সোমবার (৪অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫টায় ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ক্রিকেট কিংবা ফুটবল যেখানেই হোক না কেন বাংলাদেশ ও ভারতের ম্যাচ মানেই অন্যরকম উত্তেজনা, হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।

যথাযথ পরিকল্পনা অনুযায়ী, এগোনোর ফলে গত কয়েক বছরে ভারতের ফুটবল যথেষ্ট উন্নতি করেছে। সে তুলনায় খুব একটা এগোতে পারেনি বাংলাদেশের ফুটবল। তাই দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের বিকল্প ভাবতে নারাজ অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা। এছাড়া বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের দুজন ফুটবলার জ্বর থেকে সেরে উঠেছে এবং মিডফিল্ডার সোহেল রানা ইতোমধ্যে পুরো টিমের সঙ্গে প্র্যাক্টিস সেশনে যোগদান করেছে। তিন দিন পর অনুশীলনে ফিরেছেন তিনি। মালদ্বীপে এসেই জ্বরে আক্রান্ত হন সোহেল। এজন্য অনুশীলনে অনুপস্থিত ছিলেন তিনি।

ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ সামনে রেখে জামাল-তপুরা শনিবার (২ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় সাড়ে ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত এফএএম প্র্যাকটিস গ্রাউন্ডের টার্ফে অনুশীলন করেছে। এ সময় জামালরা দুটি ভাগে বিভক্ত হয়ে প্রস্তুতি নেয়। এক ভাগের খেলোয়াড়রা রিকভারি সেশনে অংশ নেয় এবং অপর ভাগ রেগুলার প্রস্তুতিতে অংশগ্রহণ করেন। তবে এদিন রিকভারির কাজই বেশি করিয়েছেন কোচ অস্কার ব্রুজন। অনুশীলন শেষে ফুটবলাররা আইস বাথ গ্রহণ করেন।

এদিকে সাফে অংশ নেয়া দলের মধ্যে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে সবার চেয়ে এগিয়ে আছে ভারত (১০৭)। আর বাংলাদেশের অবস্থান ১৮৯। এমনকি সাফে সাতবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। এবারের টুর্নামেন্টও ফেভারিট তারা। কিন্তু এসব নিয়ে এখন ভাবতে নারাজ জামালরা। এর আগে বাংলাদেশ ও ভারত সর্বশেষ মুখোমুখি হয়েছিল কলকাতার সল্ট লেক স্টেডিয়ামে। ওই ম্যাচে খেলায় এগিয়ে থেকেও লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা শেষ পর্যন্ত ভারতের বিপক্ষে ড্র করে মাঠ ছাড়ে। তাই এবার সাফে কিভাবে প্রতিবেশী দেশকে হারানো যায় তার ছক কষছেন তপু-সোহেলরা। আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ জয়ের স্বপ্ন দেখছে। এজন্য সুযোগের সদ্ব্যবহার করার পরিকল্পনা করছেন অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

শনিবার অনুশীলন শেষে মিডফিল্ডার সোহেল বলেন, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভালোভাবে শুরু করতে চেয়েছিলাম। তা জয় দিয়েই হয়েছে। ভারতের বিপক্ষে লড়াইয়ের আগে আত্মবিশ্বাসের লেভেল ভালো থাকবে। তাছাড়া শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একাধিক সুযোগ পেয়ে গোল ব্যবধান বাড়াতে পারেনি দল। তবে ভারতের বিপক্ষে এমন সুযোগ কম আসবে। যেটুকু সুযোাগ আসবে তা কাজে লাগাতে হবে। ভারতের বিপক্ষে সুযোগ পেলে তা যেন ফিনিশ করতে পারি।

এছাড়া নিজের শারীরিক অবস্থার বিষয় সোহেল বলেন, আমি অনুশীলন করেছি। তবে শরীর দুর্বল আছে। দলের সঙ্গে অনুশীলন করলেও পুরোপুরি ফিটনেস ফিরে পায়নি। তবে সামনে সময় আছে। দ্রুত রিকভারি করতে পারব। ভারতের বিপক্ষে মাঠে থাকতে পারব। তবে খেলতে পারব কিনা কোচ বলবে। এছাড়া আমার শরীরের ওপর নির্ভর করবে।

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শক্তিশালী ভারতের মোকাবিলা করবে বাংলাদেশ। এবারের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ হচ্ছে পাঁচ দেশ নিয়ে। প্রত্যেক দল প্রত্যেকের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার পর পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুইয়ে থাকা দুটি দল ফাইনালে খেলবে। বাংলাদেশ যেহেতু তাদের প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে। এখন ভারতের বিপক্ষে জয় তুলে নিতে পারলে ফাইনালের পথে অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারবে।

ভারতের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ ৩০টি ম্যাচ খেলেছে। এর মধ্যে জয় পেয়েছে ২টি ম্যাচে। হেরেছে ১৬টি ম্যাচে। আর বাকি ১২টি ম্যাচ ড্র করেছে। বাংলাদেশ ভারতের বিপক্ষে সর্বশেষ ১৯৯৯ সালে জয় পায়। এরপর আরো ১৩টি ম্যাচ খেলে দুই দল। এই ১৩টি ম্যাচের মধ্যে বাংলাদেশ বেশ কয়েকবার জয়ের খুব কাছে গেলেও শেষ পর্যন্ত ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে। এখন অস্কার ব্রুজন তার কৌশল দিয়ে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের সেই অধরা জয় এনে দিতে পারেন কিনা এটিই এখন দেখার বিষয়।

এদিকে অস্কার ব্রুজনের কোচিং ক্যারিয়ার বেশ সমৃদ্ধ। ক্লাব পর্যায়ে অনেক বড় বড় জায়গায় কাজ করেছেন তিনি। তবে এবারই প্রথমবারের মতো কোনো জাতীয় দলের প্রধান কোচ হয়েছেন। ২০১২-১৪ মৌসুমে ক্লাব ফুটবলে ব্রুজন প্রথম কোচিং করিয়েছেন ভারতের আই লিগের ক্লাব স্পোর্টিং গোয়াতে। এরপর ২০১৫-১৬ মৌসুমে ভারতের মুম্বাই সিটি ও ২০১৬-১৭ মৌসুমে ছিলেন স্পেনের ক্লাব রিয়াল মায়োর্কার সহকারী কোচের দায়িত্বে। ব্রুজনের কোচিং ক্যারিয়ারের মাইলফলক বলা যায় সেটি।

এরপর ২০১৭ সালের ২২ মার্চ আবারো ফিরে আসেন ভারতে। মুম্বাই এফসি, মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্ট হয়ে ২০১৮ সালে আসেন বাংলাদেশ। বসুন্ধরা কিংসের দায়িত্ব নিয়েই দলকে অপরাজেয় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন ঘরোয়া ফুটবলে।

প্রিমিয়ার লিগে ২৪ ম্যাচে মাত্র ১টি ম্যাচে হেরেছিল ব্রুজনের বসুন্ধরা কিংস। সেই হারও শিরোপা নিশ্চিত হওয়ার পর। প্রিমিয়ার লিগ দুবার, স্বাধীনতা কাপ, ফেডারেশন কাপের শিরোপা জেতা হয়ে গেছে ব্রুজনের।

এএফসি কাপেও বসুন্ধরা কিংসকে নিয়ে গেছেন ব্রুজন। সব মিলিয়ে ব্রুজনের অধীনে ৮৩ ম্যাচ খেলেছে বসুন্ধরা কিংস। এর মধ্যে ৬৪ ম্যাচে জয়, ১১ ড্র ও ৮ ম্যাচে হার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নদের। এখন কোচিং ক্যারিয়ারে তার এমন অভিজ্ঞতা যদি বাংলাদেশ জাতীয় দলের জন্য সাফল্য নিয়ে আসতে পারে তাহলে বিষয়টি হবে অসাধারণ।

রি-কেই/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়