হাতে একে-৪৭, শিশুদের মতো আনন্দে তালেবান যোদ্ধারা!

আগের সংবাদ

শেরপুরে হত্যা মামলার আসামীর বাড়ি লুটপাট করল বাদীপক্ষ

পরের সংবাদ

আশুলিয়া-রাপা প্লাজায় স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনার হোতা সোহরাব গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১ , ৩:৩২ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১ , ৩:৩২ অপরাহ্ণ

ডাকাতিতে ব্যবহৃত স্পীডবোট উদ্ধার

রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ডাকাত দলের নেতৃত্বদানকারী সোহরাব হাওলাদারকে (৪৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। বুধবার গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সোহরাব হাওলাদারকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে আশুলিয়া ও রাজধানীর রাপা প্লাজাসহ বেশ কয়েকটি ডাকাতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করলো সিআইডি। যাদের মধ্যে ১০জন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ইতিমধ্যেই।

এই ডাকাত দলটির নেতা সোহরাব হাওলাদার দলের অন্যদের কাছে মাস্টার হিসেবে পরিচিত, তার পরিকল্পনা ও নেতৃত্বেই এসব ডাকাতি সংগঠিত হয়। এই ডাকাত দলটির কাছ থেকে ১৫ লাখ টাকা মূল্যের একটি স্পিডবোটও উদ্ধার করা হয়। যেটি ব্যবহার করে ডাকাতি শেষে নৌপথে দ্রুত পালিয়ে যেতো তারা।

বৃহস্পতিবার সিআইডি প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন সিআইডি ঢাকা মেট্রোর অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন।

সোহরাব হাওলাদারকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিআইডি ঢাকা মেট্রোর অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, গত ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকার পার্শ্ববর্তী আশুলিয়ায় ১৯ টি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ঘটনা তদন্তে একটি আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সন্ধান পায় সিআইডি। একে একে এই দলের মূলহোতাসহ ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়, যারা আশুলিয়া, রাজধানীর রাপা প্লাজাসহ বেশ কয়েকটি ডাকাতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তারদের দেয়া তথ্য মতে বিভিন্ন এলাকা থেকে লুটকৃত স্বর্ণালঙ্কার ও স্বর্ণ গলিয়ে তৈরি করা পাত উদ্ধারকরা হয়। একপর্যায়ে জানা যায়, পুরান ঢাকার তাতীবাজার কেন্দ্রীক একটি চক্র সক্রিয় রয়েছে। যারা এসব লুটকৃত স্বর্ণালঙ্কার সংগ্রহ করে পাত বানিয়ে বিক্রি করে দেন।

জব্দ স্পীডবোট

সিআইডির এই কর্মকর্তা বলেন, আশুলিয়ার ঘটনা তদন্তে গত ৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর রাপা প্লাজায় স্বর্ণের দোকানে প্রায় ২০০ ভরি স্বর্ণালংকার ডাকাতির রহস্যও উন্মোচিত হয়। এই ডাকাত দলটির একটি গ্রুপই রাপা প্লাজায় ডাকাতি সংগঠিত করেছিলো। ডাকাত দলটির দেওয়া তথ্যমতে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া বাজার ঘাট থেকে ডাকাতিতে ব্যবহৃত একটি স্পিডবোট উদ্ধার করা হয়। যার বাজারমূল্য আনুমানিক ১৫ লাখ টাকা। ডাকাত দলের সদস্যরা ডাকাতি শেষে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার জন্য এই স্পিডবোট ব্যবহার করতো বলেও জানান তিনি।

রি-এআরজে/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়