এ বছর হচ্ছে না জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা

আগের সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নথি জালিয়াতি ঘৃণ্য অপরাধ: হাইকোর্ট

পরের সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে শব্দের চেয়েও দ্রুত গতির মিসাইলের পরীক্ষা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ , ৩:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ , ৩:৩৮ অপরাহ্ণ

রাশিয়াকে টক্কর দিতে তৈরি যুক্তরাষ্ট্র। কিছুদিন আগে রাশিয়া এই ধরনের মিসাইলের পরীক্ষা করেছিল। শব্দের চেয়ে পাঁচ গুণ দ্রুত পথ পাড়ি দিতে পারে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন মিসাইল। পরিভাষায় যাকে বলা হয় মাক পাঁচ।

সোমবার পেন্টাগন বিবৃতি দিয়ে নতুন মিসাইলের কথা জানিয়েছে। মাসখানেক আগে রাশিয়া একই ধরনের হাইপারসনিক মিসাইলের পরীক্ষা করেছিল। তারপরেই যুক্তরাষ্ট্রের এই পরীক্ষার তথ্য সামনে আনলো। পেন্টাগন জানিয়েছে, দিনকয়েক আগে নতুন মিসাইলের সফল পরীক্ষা হয়েছে। খবর ডয়েচে ভেলের।

পেন্টাগনের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন এই মিসাইলের প্রজেক্টের নাম ‘হাইপারসনিক এয়ার-ব্রিদিং ওয়েপন কনসেপ্ট’। সামরিক অস্ত্র তৈরির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা রেথিওন টেকনোলজিস অ্যান্ড নরথপ গ্রুম্যান এই মিসাইলটি তৈরি করেছে। সফল পরীক্ষার পর মার্কিন সামরিক বাহিনীর কাছে এর প্রযুক্তিগত তথ্য দেওয়া হবে। সামরিক বাহিনী এরপর মিসাইলটি তৈরির দায়িত্ব দেবে সরকারি সংস্থাকে।

প্রস্তুতকারক সংস্থাটি জানিয়েছে, মিনিটে ষাট মাইল বা একশো কিলোমিটার পাড়ি দিতে পারে এই মিসাইলটি। সেকেন্ডে এক মাইল। শব্দের গতিবেগ থেকে যা পাঁচ গুণ বেশি।

পরীক্ষার সময় একটি যুদ্ধবিমানের উইং থেকে মিসাইলটি নিক্ষেপ করা হয়। এর এক সেকেন্ডের মধ্যে একটি রকেট বুস্টারের মাধ্যমে মিসাইলটির গতিবেগ অনেকটা বাড়িয়ে দেওয়া হয়। এর ফলে মাক ওয়ান গতি পায় মিসাইলটি। এর এক সেকেন্ডের মধ্যে মিসাইলটির মধ্যে লাগানো আরেকটি ইঞ্জিন চালু করে দেওয়া হয়। যা গতিবেগ শব্দের পাঁচ গুণে পৌঁছে দেয় মিসাইলের গতিবেগ।

এরআগে রাশিয়া হাইপারসনিক মিসাইলের পরীক্ষা করেছিল। রাশিয়ার সামরিক বাহিনী জানিয়েছিল, জাহাজ থেকে ওই মিসাইল ছোড়া হয়েছিল। ভ্লাদিমির পুটিন বলেছিলেন, মিসাইলের গতিবেগ এতটাই যে, তা চোখে দেখা যায় না। ওই মিসাইলের মাধ্যমে রাশিয়া অতি আধুনিক যুদ্ধাস্ত্রের সম্ভার তৈরি করতে শুরু করল বলে জানিয়েছিলেন দেশের প্রেসিডেন্ট। তারপরেই অ্যামেরিকার এই পরীক্ষা কূটনৈতিক উত্তর বলে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়