ডেঙ্গুতে আরও ২ মৃত্যু, হাসপাতালে ২১৯ জন

আগের সংবাদ

পূজায় এবার ঢাকায়, অপেক্ষা করব সৃজিত কখন আসবে: মিথিলা

পরের সংবাদ

পর্তুগালে সিটি নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশি বিজয়ী

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ , ৬:৫০ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ , ৮:২২ অপরাহ্ণ

পর্তুগালের দ্বিতীয় বৃহত্তর বন্দর ও বাণিজ্যিক নগরী পোর্তোর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন শাহ আলম কাজল। গত রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) পোর্তোর মিউনিসিপালিটি নির্বাচনে পোর্তো শহরের জুন্টা ফ্রেগজিয়া বনফিমের অ্যাসেম্বলিতে ৪৪ শতাংশ ভোট পড়ে। ক্ষমতাসীন সোশ্যালিস্ট পার্টির হয়ে প্রবাসী বাংলাদেশি শাহ আলম কাজল ২১ দশমিক ২ শতাংশ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন।

২০১৭ সালেও পোর্তো সিটি করপোরেশনে কাউন্সিলর হিসেবে পর্তুগাল সোশ্যালিস্ট পার্টি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন তিনি।

নির্বাচনে জয়ের অনুভূতি জানাতে গিয়ে শাহ আলম কাজল বলেন, আমি মনে করি এখানে বর্তমানে বেড়ে ওঠা আমাদের আগামী প্রজন্ম পর্তুগালের স্থানীয় রাজনীতি ছাড়াও বিভিন্ন সেক্টরে প্রতিনিধিত্ব করবে।

পর্তুগালে নতুন আগত প্রবাসীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, মূলধারা এবং স্থানীয় কমিউনিটির সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে নিজেদের পাশাপাশি বাংলাদেশকে স্থানীয় পর্তুগিজদের মাঝে তুলে ধরতে হবে।

বাংলাদেশের নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলার সন্তান শাহ আলম কাজল স্নাতক শেষ করেন। এরপর তিনি জীবন ও জীবিকার তাগিদে ১৯৯২ সালে পর্তুগালে যান। সহজে পর্তুগিজ ভাষা রপ্ত করার মাধ্যমে ১৯৯৮ সাল থেকে পর্তুগালে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে অনুবাদক হিসেবে কাজ নেন। এর পাশাপাশি প্রবাসীদের সামাজিক উন্নয়নের কাজে যুক্ত হন। পরবর্তীতে বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তো গঠন হলে সভাপতির দায়িত্ব পান, যা পর্তুগালে প্রথম কোনো প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠন এবং দেশটির সরকার অনুমোদিত।

কাজল ২০০৪ সালে পর্তুগালের নাগরিকত্ব পান। প্রবাসী বাংলাদেশিদের সুযোগ সুবিধা আদায়ে এবং বাংলাদেশকে বিদেশের মাটিতে তুলে ধরার জন্য তিনি ২০১১ সালে বর্তমান ক্ষমতাসীন সোশ্যালিস্ট পার্টিতে একজন কর্মী হিসেবে যোগ দেন।

স্থানীয় রাজনীতিতে একজন বিদেশি নাগরিক হিসেবে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ পার করে বর্তমানে পোর্তো মহানগর কার্যকর কমিটির সদস্য এবং বনফিমের ডেপুটি স্পিকার হিসেবে দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

শাহ আলম কাজল পরিবার নিয়ে পর্তুগালের পোর্তোয় বসবাস করছেন। তিনি দুই মেয়ে এবং এক ছেলের বাবা।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়