বন্যা: হাঁড়িতে ভাসিয়ে শিশুকে পোলিও টিকা খাওয়াতে নিয়ে এলেন বাবা

আগের সংবাদ

ভারতে ঘূর্ণিঝড় গুলাবের আঘাতে তিন জনের মৃত্যু

পরের সংবাদ

হার্ষাল প্যাটেলের হ্যাটট্রিকে ব্যাঙ্গালুরুর দারুণ জয়

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ , ৯:২৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ , ৯:৩০ পূর্বাহ্ণ

দুবাইয়ে আইপিএল ২০২১-এর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে সম্মুখসমরে নামে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। শেষমেশ বড় ব্যবধানে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের পরাজিত করে আরসিবি।

প্রথমে ব্যাট হাতে ৩৭ বলে ৫৬ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন ম্যাক্সওয়েল। পরে বল হাতে ৪ ওভারে ২৩ রানের বিনিময়ে দখল করেন ২টি উইকেট। স্বাভাবিকভাবেই এমন অল-রাউন্ড পারফর্ম্যান্সের সুবাদে ম্যাচের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন গ্লেন।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের ৬ উইকেটে ১৬৫ রানের জবাবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ১৮.১ ওভারে ১১১ রানে অল-আউট হয়ে যায়। মুম্বই ৫৪ রানের বড় ব্যবধানে ম্যাচ জেতে। আমিরশাহি লেগের পরপর তিন ম্যাচ ম্যাচে হার ডিফন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের।

১৯তম ওভারের প্রথম বলে অ্যাডাম মিলিনকে বোল্ড করে মু্ম্বইয়ের লেজ ছেঁটে দিলেন হার্ষাল প্যাটেল। ম্যাচে হার্ষালের এটি চতুর্থ শিকার। এক বলে কোনও রান না করেই আউট হন মিলিন। ৩ বল খেলে কোনও রান না করেই নট-আউট থাকেন বোল্ট।

১৮তম ওভারের তৃতীয় বলে বুমরাহকে বোল্ড করেন যুজবেন্দ্র চাহাল। ১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৬ বলে ৫ রান করে ক্রিজ ছাড়েন বুমরাহ। মুম্বই ১১১ রানে ৯ উইকেট হারায়। ক্রিজে শেষ ব্যাটসম্যান ট্রেন্ট বোল্ট।

১৬তম ওভারের তৃতীয় বলে রাহুল চাহারকে এলবিডব্লিউৃর ফাঁদে জড়িয়ে ব্যক্তিগত হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন হার্ষাল। ১ বলে খেলে খাতা খোলার আগেই ক্রিজ ছাড়তে হয় চাহারকে। মুম্বই ১০৬ রানে ৮ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান জসপ্রীত বুমরাহ।

হার্দিককে ফেরানোর ঠিক পরেই বলেই পোলার্ডকে বোল্ড করেন হার্ষাল। ১০ বলে ৭ রান করে মাঠ ছাড়েন ক্যারিবিয়ান তারকা। মু্ম্বাই ১০৬ রানে ৭ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান রাহুল চাহার। হ্যাটট্রিকের সামনে হার্ষাল প্যাটেল ১৬তম ওভারের শুরুতেই ওয়াইড করেন হার্ষাল। পুনরায় প্রথম বল করতে এসে হার্দিক পান্ডিয়ার উইকেট তুলে নেন তিনি। ৬ বলে ৩ রান করে কোহলির হাতে ধরা পড়েন হার্দিক। মুম্বাই ১০৬ রানে ৬ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান অ্যাডাম মিলিন।

১৫তম ওভারের প্রথম বলে আউট হলেন সূর্যকুমার যাদব। সিরাজের বলে চাহালের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৯ বলে ৮ রান করে ক্রিজ ছাড়েন যাদব। মুম্বাই ৯৭ রানে ৫ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান হার্দিক পান্ডিয়া। সাত নম্বরে ব্যাট করতে নামেন হার্দিক।

১৪ ওভার শেষে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ৪ উইকেটের বিনিময়ে ৯৭ রান তুলেছে। জয়ের জন্য শেষ ৬ ওভারে দলকার ৬৯ রান। সূর্যকুমার ৮ ও পোলার্ড ২ রানে ব্যাট করছেন। ম্যাক্সওয়েল ৪ ওভারের বোলিং কোটা শেষ করেন ২৩ রানের বিনিময়ে ২ উইকেট নিয়ে।

১৪তম ওভারের প্রথম বলে ক্রুণাল পান্ডিয়াকে বোল্ড করলেন ম্যাক্সওয়েল। ১১ বলে ৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন ক্রুণাল। মুম্বাই ৯৩ রানে ৪ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান কায়রন পোলার্ড।

চলতি আইপিএলে খারাপ ফর্ম জারি ইশান কিষাণের। আরসিবির বিরুদ্ধে ৯ রান করে আউট হলেন তিনি। ১২ বলে ইনিংসে ১টি চার মারেন ইশান। তার উইকেট তুলে নেন চাহাল। ক্যাচ ধরেন হার্ষাল প্যাটেল। ম্যাচে যুজবেন্দ্রর এটি দ্বিতীয় শিকার। মুম্বই ৮১ রানে ৩ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান ক্রুণাল পান্ডিয়া।

দশম ওভারের শেষ বলে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল তুলে নেন রোহিত শর্মার উইকেট। ৫টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ২৮ বলে ৪৩ রান করে পাডিক্কালের হাতে ধরা পড়েন হিটম্যান। মুম্বই ৭৯ রানে ২ উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার।

কুইন্টন ডি’কককে ফিরিয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ওপেনিং জুটি ভাঙলেন যুজবেন্দ্র চাহাল। সপ্তম ওভারের চতুর্থ বলে ম্যাক্সওয়েলের হাতে ধরা পড়েন কুইন্টন। ৪টি বাউন্ডারির সাহায্যে ২৩ বলে ২৪ রান করে ক্রিজ ছাড়েন ডি’কক। মুম্বাই দলগত ৫৭ রানে প্রথম উইকেট হারায়। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান ইশান কিষাণ।

পাওয়ার প্লে’র ৬ ওভারে মুম্বাই কোনোও উইকেট না হারিয়ে ৫৬ রান তুলেছে। রোহিত ১৭ বলে ২৯ রান করেছেন। ২০ বলে ২৪ রান করেছেন ডি’কক।
৫ ওভার শেষে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কোনও উইকেট না হারিয়ে ৫১ রান তুলেছে। রোহিত ১৪ বলে ২৬ রান করেছেন। ১৭ বলে ২৩ রান করেছেন ডি’কক।

তৃতীয় ওভারের শেষ ৩ বলে জেমিসনকে পরপর তিনটি বাউন্ডারি মারেন রোহিত শর্মা। ৩ ওভার শেষে মুম্বই বিনা উইকেটে ২৭ রান তুলেছে। রোহিত ১৮ ও ডি’কক ৮ রানে ব্যাট করছেন। মুম্বাইয়ের হয়ে ওপেন করতে নামেন রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি’কক। আরসিবির হয়ে নতুন বলে বোলিং শুরু করেন কাইল জেমিসন।

শেষ ওভারে মাত্র ৩ রান ওঠে। শেষ ২ ওভারে ওঠে সাকুল্যে ৯ রান। আরসিবি নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৬৫ রান তোলে। জয়ের জন্য মুম্বইয়ের দরকার ১৬৬ রান। ক্রিশ্চিয়ান ৩ বলে ১ রান করে অপরাজিত থাকেন। জেমিসন ২ বলে ২ রান করে নট-আউট থাকেন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়