উন্নতির সোপান

আগের সংবাদ

হ্যান্ডবলে পঞ্চগড় জেলা চ্যাম্পিয়ন

পরের সংবাদ

শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ , ১২:২০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ , ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

বিরোধীদলীয় নেত্রী থাকাকালীন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়ি বহর হামলা মামলার ঘটনার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির নাম- মো. তারিকুজ্জামান ওরফে কনক।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ৩টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিরপুর একশ ফিট এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপি গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) মতিঝিল বিভাগ।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে ডিবি মতিঝিল বিভাগের উপ-কমিশনার রিফাত রহমান শামীম বলেন, গ্রেপ্তারকৃত তারিকুজ্জামান বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়ী বহর হামলায় জড়িত সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তারকৃতর বিরুদ্ধে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান এ গোয়েন্দা কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, ২০ বছর আগে ২০০১ সালে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা সাতক্ষীরা জেলায় সমাবেশ করে কলারোয়া থানা হয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেছিলেন। পথিমধ্যে কলারোয়া থানাধীন তুলশীডাঙ্গায় তার গাড়ি বহরে হামলা হয়। হামলার দিন তারিকুজ্জামান সকাল সাড়ে ৯টার দিকে থানা বিএনপির পার্টি অফিসে দলীয় নেতা-কর্মীর সঙ্গে মিলিত হন। পার্টি অফিসে নেতাদের মাধ্যমে জানতে পারে শেখ হাসিনা কলারোয়া থানার তুলশীডাঙ্গা হয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাবেন খবর পেয়ে বিভিন্ন নেতাকর্মীদের সেই রোডে উপস্থিত হয়ে বাস দাড় করিয়ে যানজটের সৃষ্টি করে। কিছুক্ষনের মধ্যে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ যানজট ছাড়ানোর জন্য এলে বাসটি সরিয়ে ফেলেন। তবে ইতিমধ্যে শেখ হাসিনার গাড়ি বহর চলে এলে যানজটে পড়েন। সে সময় অন্যান্য নেতাকর্মীদের সঙ্গে তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রীর গাড়ির বহরে হামলা করেন। শেখ হাসিনার গাড়ি কৌশলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করলেও তৎকালীন এমপি পদপ্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মজিবুর রহমানের গাড়িসহ অন্যান্য গাড়ি ব্যাপক ভাংচুর করা হয়। এ সময় বেশ কিছু দলীয় নেতাকর্মীও আহত হন। পরে এ ঘটনায় গত ২০১৪ সালে সাতক্ষীরা কলারোয়া থানায় বিস্ফোরক আইনে একটি মামলা হয়।

রি-এআরজে/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়